ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

নিজের ও লিটনের অফ ফর্ম নিয়ে যা বলছেন অধিনায়ক শান্ত  

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৩ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
নিজের ও লিটনের অফ ফর্ম নিয়ে যা বলছেন অধিনায়ক শান্ত  

নাজমুল হোসেন শান্ত ব্যাখ্যা দিচ্ছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বাদ পড়া নিয়ে। এর মধ্যেই চলে এলো প্রশ্নটা।

অধিনায়কের নিজেরই ফর্ম খারাপ, এর সঙ্গে নাম এলো টপ অর্ডার লিটন দাসেরও। কিন্তু তারা দুজনই যাচ্ছেন বিশ্বকাপে।  

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ খেলে স্রেফ ৮১ রান করেছেন সাইফউদ্দিন, স্ট্রাইক রেট ছিল ১০৩.৪। আর লিটনের ব্যাট থেকে ৩ ম্যাচে এসে ৩৬ রান। সাইফউদ্দিনের ক্ষেত্রে তানজিম হাসান সাকিবকে বেছে নেওয়া হয়েছিল। লিটন-শান্ত কেন বেঁচে গেলেন?

উত্তরে শান্ত বলেন, ‘লিটন এবং আমার কথা যা বললেন আমার মনে হয় না এটা খুব ভালো উইকেটে আমরা খেলেছি, এমনকি চট্টগ্রামেও (জিম্বাবুয়ে সিরিজে)। অবশ্যই রানে থাকলে দলের জন্য ভালো। আমরা শেষ মুহূর্তে চাইনি নতুন কেউ চলে আসুক। আমরা যে ভুলটা হয়তো অতীতে করেছি আমরা চেয়েছি যে দলটা আমাদের থাকবে তা নিয়ে যেন বিশ্বকাপে যাব। আমার দলের সবাই ক্লিয়ার মাইন্ডে আছে আশা করব সবাই সেখানে গিয়ে সেভাবে ডেলিভারি করবে। ’ 

তাহলে কি বিকল্প থাকতে বাদ পড়ার কোনো সম্ভাবনা ছিল লিটনের? শান্তর উত্তর, ‘না। আমরা আরও আগে থেকে বিশ্বকাপ নিয়ে প্ল্যান করছিলাম। আমরা এখান থেকে চেয়েছি যত বেশি প্রস্তুত হয়ে বিশ্বকাপে যেতে পারি। এই সিরিজগুলো থেকে আমরা কীভাবে আত্মবিশ্বাস নিয়ে যাব সে চেষ্টাই করেছি। ’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এরপর যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে তাদের বিপক্ষে খেলবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। তবে বিশ্বকাপের আগে ভারতের বিপক্ষে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে বাংলাদেশের।

সেটিই কি প্রস্তুতির জন্য হবে সবচেয়ে বড় মঞ্চ? শান্ত বলেছেন, ‘না, এরকম কিছু মনে হয় না। একটা ভালো প্রস্তুতি ম্যাচ হবে। কন্ডিশন সম্পর্কে ধারণা পাব। ওইটাই আমাদের কাজে দিবে যখন আমরা মেইন রাউন্ডে ম্যাচ খেলব। ’

বাংলাদেশের জন্য ব্যাটিংটা দুশ্চিন্তার, সেটি বারবারই বলা হচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্টের পক্ষ থেকে। বিশেষ করে টপ অর্ডার ব্যাটারদের পারফরম্যান্স হয়ে গেছে বেশ দুশ্চিন্তার। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের শক্তির জায়গা কোথায়? এমন প্রশ্নও ছিল শান্তর কাছে।  

উত্তরে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের বোলিং ডিপার্টমেন্ট আগের থেকে অনেক উন্নত হয়েছে। টি-টোয়েন্টিতে আমি মনে করি যদি বোলাররা ভালো করলে জেতার সম্ভাবনা থাকে বেশি। টি-টোয়েন্টিতে আমি মনে করি বোলাররা বেশি ম্যাচ জেতায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজে আশা করি স্পিন সহায়ক হবে। স্পিনে আমাদের ভালো ভ্যারিয়েশন আছে। ’

বাংলাদেশ সময়: ২০০৩ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
এমএইচবি/আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।