ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

ক্রিকেট

ফাইনালে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে কিংবদন্তিদের কাতারে হেড, শিরোপার ঘ্রাণ পাচ্ছে অজিরা

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
ফাইনালে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে কিংবদন্তিদের কাতারে হেড, শিরোপার ঘ্রাণ পাচ্ছে অজিরা

তার ভুলে লেগ বিফোর হয়ে ফিরেছেন দলের অন্যতম সেরা ব্যাটার স্টিভেন স্মিথ। অস্ট্রেলিয়া সমর্থকদের চোখে ভিলেন হওয়ার কথা ছিল তার।

কিন্তু নিজের ভুলের প্রায়শ্চিত্ত কি দারুণভাবেই না করলেন ট্রাভিস হেড! দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে দলকে জয়ের পথে রাখার পাশাপাশি নিজের নামটাও কিংবদন্তিদের কাতারে লেখালেন এই বাঁহাতি ওপেনার।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৮ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২১৪ রান সংগ্রহ করেছে অজিরা।  

ভারতের ছুড়ে দেওয়া ২৪১ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার ওয়ার্নারের উইকেট হারায় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ৩ বলে ৭ রান করে ওয়ার্নার ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামির বলে বিরাট কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন।  

এরপর মিচেল মার্শ ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিলেও ফিরেছেন দ্রুতই। ১৫ বলে তার ১৫ রানের ইনিংস থামে জাসপ্রিত বুমরাহর বলে উইকেটকিপার লোকেশ রাহুলের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে। এরপর বুমরাহর বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন স্মিথ (৪)। যদিও রিভিও নিলে বেঁচে যেতেন তিনি। রিপ্লেতে দেখা গেছে, বল অফ স্ট্যাম্প মিস করতো। কিন্তু নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা হেডের কথামতো রিভিও না নিয়েই বেরিয়ে যান স্মিথ।

স্মিথের আউটের পেছনে পরোক্ষ অবদান রাখা হেড অবশ্য পরে ক্ষতি পুষিয়ে দিয়েছেন। ধীরে ধীরে সেট হয়ে তুলে নিয়েছেন দারুণ এক ফিফটি। সেই সঙ্গে লাবুশেনের সঙ্গে বড় জুটি গড়ে দলকে রাখেন লড়াইয়ে। কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ অস্ট্রেলিয়ার হাতে তুলে দেন হেড ও লাবুশেন। এরপর ধীরে ধীরে হাত খুলতে শুরু করেন হেড। ৯৫ বলে তুলে নেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। অথচ এ আসরের প্রথম ৫ ম্যাচে মাঠেই নামতে পারেননি তিনি। কিন্তু পরের ৬ ম্যাচে হাঁকিয়ে ফেললেন দুই সেঞ্চুরি।

বিশ্বকাপ ফাইনালের ইতিহাসে মাত্র সপ্তম ব্যাটার হিসেবে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন হেড। তার আগে এই কীর্তিতে নাম লিখিয়েছেন- ক্লাইভ লয়েড (ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১৯৭৫), ভিভ রিচার্ডস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১৯৭৯), অরবিন্দ ডি সিলভা (শ্রীলঙ্কা, ১৯৯৬), রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া, ২০০৩), অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া, ২০০৭) এবং মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা, ২০১১)। তবে লঙ্কান গ্রেট ডি সিলভার পর মাত্র দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে ফাইনালে লক্ষ্য তাড়ায় নেমে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন হেড।

এদিকে ২০২৩ বিশ্বকাপের ফাইনালে আজ নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে বিরাট কোহলির ৫৪, লোকেশ রাহুলের ৬৬ ও রোহিত শর্মার ৪৭ রানের ইনিংসে ভর করে ১০ উইকেট হারিয়ে ২৪০ রানের মাঝারি সংগ্রহ দাঁড় করায় ভারত।  

বাংলাদেশ সময়: ২০২৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।