ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১ মহররম ১৪৪৬

ক্রিকেট

অবশেষে জয়ের মুখ দেখলো অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২৩
অবশেষে জয়ের মুখ দেখলো অস্ট্রেলিয়া

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার এবারের বিশ্বকাপে শুরুটা মোটেই ভালো হয়নি। প্রথম দুই ম্যাচ ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হারে প্যাট কামিন্সের দল।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) তৃতীয় ম্যাচে অজিরা শ্রীলঙ্কাকে হারায় ৫ উইকেট। লঙ্কানদের এটি তৃতীয় হার।

শ্রীলঙ্কার দেওয়া ২১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১১ রানে ফেরেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। একই ওভারে দিলশান মাধুশঙ্কার বলে শূন্য রানে আউট হন স্টিভ স্মিথ। এরপর তৃতীয় উইকেটে ৫৭ রানের জুটি গড়ে ধাক্কা সামাল দেন মিশেল মার্শ ও মার্নাস লাবুশেন। ৫১ বলে ৫২ করে আউট হন মার্শ।

চতুর্থ উইকেটে লাবুশেন ও জস ইংলিশের ৭৭ রানের জুটিতে জয়ের কাজ সহজ হয়ে যায় অজিদের। লাবুশেন ৪০ রান করে বিদায় নিলেও ইংলিশ অর্ধশতক করে ৫৮ রানে আউট হন। শেষদিকে ২১ বলে ৩১ রানের ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

এর আগে হতাশার শুরুর পর শ্রীলঙ্কাকে ২০৯ রানে থামায় অস্ট্রেলিয়া। দারুণ উদ্বোধনী জুটিতে ৩০০ ছাড়ানো সংগ্রহের ইঙ্গিত দিচ্ছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু সেই জুটি ভাঙতেই ধস নেমে গেল ব্যাটিং লাইনআপে। তিনশো তো দূরের কথা দুইশো পেরোতেও হিমশিম খেতে হয় লঙ্কানদের। শেষ পর্যন্ত ২০৯ রানে অলআউট হয় তারা।

প্রথম জয়ের খোঁজে আজ লখনৌর একানা স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। ইনজুরির কারণে গতকালই আসর থেকে ছিটকে যান লঙ্কানদের নিয়মিত অধিনায়ক দাসুন শানাকা।

তার পরিবর্তে নেতৃত্বের দায়িত্ব পান কুশল মেন্ডিস। অজিদের বিপক্ষে টস জিতে আজ আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন তিনি। একপর্যায়ে মনে হচ্ছিল সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছেন এই অধিনায়ক।  
উদ্বোধনী জুটিতে পাথুম নিসাঙ্কা ও কুশল পেরেরার ব্যাটিং দেখে তা মনে হওয়ারই কথা। দুজনই বেশ সাবলীল ব্যাটিং করছিলেন। তবে ২২তম ওভারে অজিদের ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন খোদ অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। নিসাঙ্কাকে শিকার করে ১২৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন তিনি। ৬৭ বলে ৮ চারে ৬১ রান করেন নিসাঙ্কা।

কামিন্সের কাছেই মাথা নত করেন আরেক ওপেনার পেরেরাও। ৮২ বলে ১২ চারে ৭৮ রান করে ফেরেন তিনি। এরপর লঙ্কান মিডল অর্ডারে ধস নামান অ্যাডাম জাম্পা। ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণে শেষ ৯ ব্যাটারের মধ্যে দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন কেবল চারিথ আসালাঙ্কা (২৫)। বাকিরা ছিলেন কেবল আসা যাওয়ার মধ্যে। শেষ ৪৪ রানের ভেতরই ৮ উইকেট হারায় লঙ্কানরা।

অজিদের হয়ে জাম্পা সর্বোচ্চ চারটি উইকেট নেন। এছাড়া মিচেল স্টার্ক, কামিন্স দুটি এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল শিকার করেন এক উইকেট।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৩৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২৩
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।