ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

ক্রিকেট

সাকিবের ক্যানসার ফাউন্ডেশনকে ওষুধ দিয়ে সহায়তার আশ্বাস পাপনের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২২ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৩
সাকিবের ক্যানসার ফাউন্ডেশনকে ওষুধ দিয়ে সহায়তার আশ্বাস পাপনের

আগের দিনই সিলেটে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শেষ করেছে বাংলাদেশ। সফরকারীদের রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে স্বাগতিকরা।

ম্যাচশেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাজমুল হাসান পাপন; সাকিব আল হাসান তো খেলেছেন ম্যাচই।

পরদিনই তারা দুজন ছিলেন ঢাকায়। সাকিব আল হাসান ক্যানসার ফাউন্ডেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন পাপন। সেখানে বক্তব্যও রাখেন তিনি। ওষুধ শিল্প সমিতির সভাপতি হিসেবে সাকিবের ফাউন্ডেশনকে সাহায্য করার আশ্বাস দেন বিসিবি প্রধান।

তিনি তার বক্তব্যের শুরুতে বলেন, ‘হঠাৎ করে কালকে খেলা দেখার পর থেকে কাশি হচ্ছে। বেশি খুশি হলে কাশি হয় কি না ডাক্তারকে জিজ্ঞেস করতে হবে। কারণ আমাদের কিছু খেলোয়াড়রা এত সুন্দর খেলেছে। হারা-জেতা বড় কথা না, যেভাবে তারা খেলেছে, আসলে আমরা তাদের আউটপ্লেইড করেছি। আমি বলতে চাচ্ছি ভালো বোলিং, ফিল্ডিং, ব্যাটিং দেখলে সবসময় ভালো লাগে। কিন্তু হঠাৎ করে আজকে দেখছি কাশি, খুঁজে বের করতে হবে কেন। রোজার সময় কিছুর টেস্টও করতে পারছি না, করতে হবে। ’

এ সময় পাপন সাকিবের জন্মদিন মনে রাখার প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন, ‘সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আজকে সাকিবের জন্মদিন। আমি জানতাম না। এটা একটা বড় দিন। আমার জানা উচিত ছিল কিন্তু আমি জানতাম না। এবং এমন একটা দিনে এ ধরনের একটা প্রোগ্রাম সত্যিই আমি মনে করি এর চেয়ে ভালো দিন আর হতে পারে না। জন্মদিনে এমন একটা প্রোগ্রাম। ’

তিনি আরও বলেন, ‘ক্যানসার হলেই যে মারা যাবে, জীবন শেষ। এমন জিনিস এখন কিন্তু আগের মতো নেই। আমরা যদি ট্রিটমেন্ট প্রোপার করতে পারি অনেকে বেঁচে আছি। এটলিস্ট জীবন বেশিদিন বাঁচতে পারবো। যত তাড়াতাড়ি ক্যানসার ধরা পড়বে, তত তাড়াতাড়ি সেই মানুষটাকে আমরা সুস্থ করতে পারবো। প্রথম কথা হচ্ছে সচেতনতা, আর যেটার সঙ্গে সাকিবের নাম আছে। সচেতনতা তৈরির জন্য এর চেয়ে ভালো কিছু তো আর হতে পারে না। বাংলাদেশে সাকিবের নাম শুনলেই...অবশ্যই এটা একটা প্লাস পয়েন্ট, সচেতনতা কর্মসূচি সফল করার জন্য। ’

সাকিবের ক্যানসার ফাউন্ডেশনকে ওষুধ দিয়ে সহায়তার ব্যাপারে আশ্বাস দিয়ে পাপন বলেন, ‘আমি শুধু এটুকু বলবো সাকিবের এই উদ্যোগটা একটা মহতী উদ্যোগ। অবশ্যই আমাদের সাহায্য থাকবে যেকোনো সময়, যেখানে যা লাগে। একটা সুবিধা আছে আমি আবার ওষুধ শিল্প সমিতিরও সভাপতি। অবশ্যই ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি যারা ওষুধ বানাচ্ছি বাংলাদেশে, তারা এই প্রতিষ্ঠানকে যখন যা দরকার সাহায্য করবে। এ ব্যাপারে আমি কথা দিচ্ছি। আমার তরফ থেকে শুধু সাকিব না, এটার সঙ্গে যারা যারা জড়িত আছে, সবাইকে বলে রাখছি। পূর্ণ সমর্থন সবসময় পাবে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯২১ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৩
এমএইচবি/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।