ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

হ্যাটট্রিক হারের পর প্রথম জয় পেলো কুমিল্লা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২৩
হ্যাটট্রিক হারের পর প্রথম জয় পেলো কুমিল্লা ছবি : উজ্জ্বল ধর

চট্টগ্রাম থেকে : হারতে হারতে খাদের কিনারাতেই যেন পৌঁছে গিয়েছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। একটা জয় তাদের জন্য ছিল ভীষণ জরুরি।

শেষ অবধি সেটি এলো লিটন দাসের ঝড়ের পর মোহাম্মদ রিজওয়ানের হাত ধরে। এর আগে বোলাররাও নিজেদের কাজটুকু করেছিলেন ঠিকঠাক।  

রোববার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আগে ব্যাট করে তাদের সামনে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৬ রানের লক্ষ্য দেয় স্বাগতিকরা। জবাব দিতে নেমে ১৫ বল আগেই জয় পেয়ে যায় কুমিল্লা। টানা তিন হারের পর এবারের আসরে প্রথম জয় পেলো তারা। অন্যদিকে পাঁচ ম্যাচের তিনটিতেই হেরেছে চট্টগ্রাম।  

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দুই রান তুলতেই ওপেনার উসমান খানের উইকেট হারায় চট্টগ্রাম। ৫ বল খেলে শূন্য রানে সাজঘরে ফেরত যান তিনি। এরপর ম্যাক্স ও'দউদ (২৪) ও আফিফ হোসেনের ৪৩ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। কিন্তু ২১ বলে ২৯ রান করা আফিফ বিদায় নিতেই ধস নামে তাদের ব্যাটিং অর্ডারে। ধারাবাহিকভাবে উইকেট হারাতে থাকে তারা।

৪৫ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানো চট্টগ্রাম ৯৮ রান তুলতে হারায় সপ্তম উইকেট। ধ্বংসস্তূপের মাঝে প্রায় একাই লড়াই চালিয়ে যান শুভাগত। শেষ পর্যন্ত ২৩ বলে ৩৭ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক। এছাড়া শেষদিকে ৮ বলে ১৩ রান করেন মেহেদী হাসান রানা। বল হাতে ২টি করে উইকেট নেন তানভীর ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন ও খুশদীল শাহ। বাকি উইকেট মুকিদুল ইসলামের।

জবাব দিতে নেমে কুমিল্লাকে ঝড়ো শুরু এনে দেন লিটন দাস। প্রথম ওভারেই ১২ রান তুলেন তিনি। ৫ ওভার শেষে ৫৫ রান তুলে কুমিল্লা। এর মধ্যে ৪০ রানই আসে লিটনের ব্যাট থেকে। পাওয়ার-প্লের শেষ ওভারে মৃত্যুঞ্জয়ের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরত যান লিটন। ৩ ছক্কা ও ৪ চারে ২২ বলে ৪০ রান আসে তার ব্যাটে।  

মালিন্দা পুষ্পাকুমারার করা দশম ওভারে এসে চার বলের ব্যবধানে দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে কুমিল্লা। ১৩ বলে ১৫ রান করে ইমরুল কায়েস ও কোনো রান করার আগেই সাজঘরে ফেরত যান জনাথন চার্লস। দলকে বাকি পথ টেনে নেন ইনিংস উদ্বোধনে নামা মোহাম্মদ রিজওয়ান।  

পাকিস্তানের এই ব্যাটার দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়ার আগে ৪ চারে ৩৫ বলে করেন ৩৭ রান। মাঝে ২ ছক্কায় ২৩ বলে ২২ রান করেন জাকের আলি অনিক।  

বাংলাদেশ সময় : ২১৪৭ ঘণ্টা, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৩
এমএইচবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।