ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১৮ মহররম ১৪৪৬

কর্পোরেট কর্নার

এমআইবি সদস্যদের বর্ণাঢ্য প্রাণের উৎসব

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২৪
এমআইবি সদস্যদের বর্ণাঢ্য প্রাণের উৎসব

ঢাকা: মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ (এমআইবি) এর উদ্যোগে সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে বহুল প্রত্যাশিত ‘Raise a Rise: Members’ Meet, ইভেন্ট।

অনুপ্রেরণা, নেটওয়ার্কিং এবং উদযাপনে ভরা সান্ধ্যকালীন এ আয়োজন এক ছাদের নিচে একত্রিত করেছিল দেশ জুড়ে থাকা সব সদস্যদের।

অনুষ্ঠানটি রূপ নিয়েছিল এক বর্ণাঢ্য প্রাণের উৎসবে।

অনুষ্ঠানে ‘অনন্য হও, সফলতা আলিঙ্গন করুন’ শিরোনামে আসিফ ইকবাল একটি অন্তর্দৃষ্টিপূর্ণ উপস্থাপনা করেন। এতে তিনি পেশাগত উৎকর্ষতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তার বক্তব্য অংশগ্রহণকারীদের স্বতন্ত্রতা এবং সংকল্পের সঙ্গে তাদের ব্যক্তিগত ও পেশাগত লক্ষ্য অর্জনের দৃঢ়তায় অনুপ্রাণিত করে।

এরপর একটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে এমআইবি সভাপতি অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ড. শরিফুল ইসলাম দুলু, সহ সভাপতি সৈয়দ আলমগীর, এমআইবির সহ সভাপতি ও এশিয়ান মার্কেটিং ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক ড. সৈয়দ ফরহাত আনোয়ার, আইডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশরাফ বিন তাজ অংশ নেন।

বক্তারা পেশাগত উৎকর্ষতা, এমআইবির ভবিষ্যৎ উদ্যোগ এবং কৌশলগত পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন।

এমআইবির আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক এবং ব্যাকপেজ পিআর-এর পরিচালক আশিক ইকবাল অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।

অনুষ্ঠানে মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ পরিবারের সদস্যদের এক্সক্লুসিভ মেম্বারশিপ কার্ড এবং অফিসিয়াল মেম্বারশিপ সার্টিফিকেট দেওয়া হয়।  

এছাড়া অনুষ্ঠানে আসন্ন ৭ম ‘মার্কেটিং ডে’র অফিসিয়াল লোগো উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানটিকে প্রাণবন্ত করতে একটি আনন্দদায়ক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জাঁকালো নৈশভোজের মাধ্যমে আয়োজনটি শেষ হয়।

পুরো অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠু এবং সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার জন্য এমআইবি কর্তৃপক্ষ সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে। আশা করা হচ্ছে এই আয়োজন সদস্যদের বন্ধনকে আরও শক্তিশালী করবে এবং আগামীর লক্ষ্য অর্জন এবং মসৃণ পথচলায় উৎসাহ যোগাবে।

প্রসঙ্গত, প্রায় সাত বছর আগে প্রতিষ্ঠিত হয় মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ। বাংলাদেশের প্রায় ৫০ লাখেরও বেশি মানুষ মার্কেটিং পেশার সঙ্গে জড়িত। তাদের জন্যই মূলত এ সংগঠনটিকে একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গঠন করা হয়েছে।

সেলস ও মার্কেটিং পেশার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সব পেশাজীবীদের একই প্ল্যাটফর্মে একত্রিত করে তাদের পেশাগত মানোন্নয়ন ও ভোক্তাদের সর্বাধিক সন্তুষ্টির প্রতি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সেবার উৎকর্ষ সাধনে কাজ করে যাচ্ছে মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ। সেই সঙ্গে এমআইবি মার্কেটিং প্রফেশনালদের পেশাগত দক্ষতা বাড়ানো ও তাদের বিনোদনসহ বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রমও পরিচালনা করে আসছে। সবার সম্মিলিত সহযোগিতায় প্ল্যাটফর্মটি এর সদস্যদের পেশাগত নিরাপত্তা বিধানসহ বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে এবং ইতোমধ্যে বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে প্রবেশ করেছে। সেক্ষেত্রে দক্ষ মানব সম্পদ গঠন করতে মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ সুচিন্তিত ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ একটি ইনস্টিটিউট স্থাপন করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২৪
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।