ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

আইইউবিতে জলবায়ু বিজ্ঞানী সালিমুল হক স্মারক বক্তৃতা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
আইইউবিতে জলবায়ু বিজ্ঞানী সালিমুল হক স্মারক বক্তৃতা 

ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি)-তে অনুষ্ঠিত হলো জলবায়ু বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. সালিমুল হক স্মারক বক্তৃতা ‘প্রমোটিং ক্লাইমেট জাস্টিস: রোলস অফ কোর্টস অ্যান্ড ইউথ’।  

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত আইইউবি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্মারক বক্তব্য প্রদান করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী এবং যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি স্কুল অব ল-এর অধ্যাপক ড. সেজার রদ্রিগেজ-গারাভিটো।

সাবের হোসেন চৌধুরীর বক্তব্যের বিষয় ছিলো ‘প্রোমোটিং ক্লাইমেট জাস্টিস থ্রু ইউথ এনগেজমেন্ট’। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে আমাদের অবদান ন্যূনতম, কিন্তু আমরাই এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি সবচেয়ে বেশি। এটি একটি বড় ধরনের অন্যায়। পাশাপাশি, আমাদের যতটুকু সক্ষমতা, তারচেয়ে বেশি আমাদের অভিযোজন করতে হচ্ছে। এটি আরেকটি অন্যায়। এছাড়াও, অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য যখন আমাদের স্বাস্থ্য, অবকাঠামো, শিক্ষা, তথ্যপ্রযুক্তি, প্রশিক্ষণ ও তরুণ জনগোষ্ঠীর দক্ষতা বৃদ্ধিতে আরো বেশি বিনিয়োগ করা দরকার, তখন দেশের মানুষকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব থেকে রক্ষা করার জন্য আমাদের বিনিয়োগ করতে হচ্ছে। এটি আরো একটি বড় অন্যায় ঘটছে আমাদের প্রতি।

অধ্যাপক রদ্রিগেজ-গারাভিটোর বক্তব্যের প্রতিপাদ্য ছিলো ‘প্রোমোটিং ক্লাইমেট জাস্টিস থ্রু লিটিগেশন্স’। তিনি বলেন, গত সপ্তাহে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব হিউম্যান রাইটস-এ সুইস নারীদের একটি সংগঠন ইতিহাসে প্রথমবারের মতো জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক একটি মামলায় জয়লাভ করেছে। এর অর্থ হলো, বিশ্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই আদালতটি পরিষ্কার ভাষায় রায় দিয়েছে যে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় যথেষ্ঠ কার্যকর পদক্ষেপ না নেয়া মানবাধিকারের পরিপন্থী। তাপপ্রবাহ, ঘূর্ণিঝড়, বন্যা, সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি — এগুলো সবই মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর প্রাক্তন মুখ্য সচিব মোঃ নজিবুর রহমান, পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. ফারহিনা আহমেদ, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত, বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, আইইউবির উপাচার্য অধ্যাপক তানভীর হাসান, সেন্টার ফর ক্লাইমেট জাস্টিস-বাংলাদেশ-এর পরিচালক অ্যাডভোকেট এম. হাফিজুল ইসলাম খান এবং আইইউবির ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ইক্যাড)-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাকিব হক। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আইইউবির ডিপার্টমেন্ট অফ ল-এর উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. বোরহান উদ্দীন খান।

বাংলাদেশ সময়: ১২০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।