ঢাকা, বুধবার, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

শ্রাবণের আকাশে মেঘ, ঝরছে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি

ইমতিয়াজ আহমেদ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২২
শ্রাবণের আকাশে মেঘ, ঝরছে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি বৃষ্টিভেজা প্রকৃতি। ছবি: বাংলানিউজ

মাদারীপুর: গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি আর বাতাস নিয়ে শুরু আজকের ভোর। মাঝে কিছুক্ষণ বৃষ্টির বিরতি।

দমকা বাতাস আকাশে জড়ো করে মেঘের সারি। সাদা-কালো মেঘে আকাশে ছেয়ে যেতেই আবার ঝিরিঝিরি বৃষ্টি। এই মেঘ-বৃষ্টি আর বাতাস প্রকৃতিতে এনেছে এক নতুন সতেজতা। শেষের দিকে এসেও প্রকৃতিতে এসেছে বর্ষাভাব!

রোববার (১৪ আগস্ট) ভোর থেকেই মাদারীপুরের আকাশ ভারী হয়ে আছে শ্রাবণের মেঘে। থেমে থেমে নামছে শ্রাবণধারা।

এ গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টিতে বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ অর্থাৎ শ্রমজীবীরা। ফসলের মাঠে শ্রম দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করা বড় একটি অংশ বৃষ্টির কারণে নিয়মিত কাজ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

অন্যদিকে বাজার-ঘাটে সাধারণ মানুষের উপস্থিতি কম থাকায় অলস সময় কাটাতে হচ্ছে ভ্যান-অটোরিকশা চালকদের।

আলাপ চারিতায় সাধারণ মানুষ জানান, ভারী বৃষ্টি না হলেও গত কয়েকদিন ধরে দিনের বিভিন্ন সময়ে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। শনিবার রাত থেকেই ঝিরিঝিরি বৃষ্টি ঝরছে মাদারীপুরে। একই সঙ্গে বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে গরম কমে গিয়ে স্বস্তি বিরাজ করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি তাদের অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, বৃষ্টি প্রকৃতিতে মনোরম পরিবেশ এনে দেয়। তাছাড়া বর্ষার বৃষ্টির সৌন্দর্য অন্যরকম। কিন্তু এ সৌন্দর্য উপভোগ করার মতো মানসিক প্রশান্তি কমে গেছে অনেকের। দৈনন্দিন বাজার করতে গেলেই দ্রব্যমূল্যে ঊর্ধ্বগতি ভাবিয়ে তুলছে। এক ধরনের শঙ্কা তৈরি করছে। আয়ের সঙ্গে ব্যয়ের বিস্তর ফারাক তৈরি হচ্ছে দিন দিন। এ পরিস্থিতিতে বর্ষা মনে আনন্দের দোলা দিচ্ছে না! আবার কেউ কেউ বেশ উপভোগ করছে এ বর্ষা।

কথা হলে শিবচরের ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী কলেজের একাধিক শিক্ষার্থী বাংলানিউজকে বলেন, সকাল থেকেই আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে আছে। হঠাৎই বৃষ্টি শুরু হয়। আবার থেমে যায়। কখনো প্রবল বেগে নামে আবার কখনো ঝিরিঝিরি বৃষ্টি। আবহাওয়া ঠান্ডা রয়েছে। প্রকৃতির এ রূপই তো বর্ষা! বেশ ভালো লাগছে।


মো. কাওসার শিবচরের সূর্য্যনগর এলাকার বাসিন্দা। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় হাট-বাজারে সবজি ও মাছ কম উঠেছে। অন্যান্য দিনের তুলনায় দাম কিছুটা বেশি। মাছের বাজারে দাম সবচেয়ে বেশি। নদীর মাছ তো স্পর্শই করা যায় না। চাষের মাছই কিনতে হচ্ছে। এছাড়া সবজিরও দাম বেশি। কাঁচা মরিচ থেকে শুরু করে প্রায় সব পণ্যেরই দাম বেড়েছে।

বর্ষা প্রকৃতিতে আনে নতুনত্ব। অনেকটা প্রাণহীন গাছপালা প্রান্তর বর্ষায় পায় সজীবতা। ছয় ঋতুর এ বাংলাদেশের ঋতুচক্রে শীতকাল এবং বর্ষাকাল সাধারণ মানুষের কাছে দৃশ্যমান হলেও চলতি বর্ষা বেশ অচেনাই বলে মনে করেন অনেকেই। বর্ষা তার স্বরূপে ফিরতে ফিরতে মৌসুমের শেষের দিকে এসে পড়লেও সম্পূর্ণভাবে বর্ষার রূপের প্রকাশ এখনো ঘটেনি বলে জানান প্রকৃতিপ্রেমী সাধারণ মানুষরা।

ঋতুচক্রের এ ধারাবাহিকতার ছন্দপতন মানব মনেই ছন্দপতন ঘটায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২২
জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa