ঢাকা, শনিবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ আগস্ট ২০২২, ২১ মহররম ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

সিলেটে জুন মাসে ২০০৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড

বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন, ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৪ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২২
সিলেটে জুন মাসে ২০০৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড মৌলভীবাজারে অতিরিক্ত বৃষ্টি আর পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত জনপথ। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: স্মরণকালের জনদুর্ভোগের এলাকা হিসেবে বিপন্ন হয়ে পড়েছে সিলেট। সীমান্তবর্তী নদনদীগুলোর পানি ক্রমাগত বৃদ্ধিসহ বিরামহীন বৃষ্টিপাত অনাকাঙ্ক্ষিত প্রাকৃতিক দুর্যোগকে ত্বরান্বিত করেছে।

মানুষ, গবাদিপশু, কৃষি জমি সবকিছুই যেন প্রলয়ঙ্করী তাণ্ডব রূপে নিঃশেষিত।

আবহাওয়া বিশ্লেষক বলছেন, বর্ষা মৌসুমের বর্ষণসময়ের হিসেব রয়েছে আরও প্রায় ৩ মাস। তখন চলতি বছরের বৃষ্টিপাত বাৎসরিক গত অনুপাতের মতোই হবে। খুব বেশি বৃষ্টিপাত হবে না।

জুন-২০২২ সিলেটের ১৪৫৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত এবং শ্রীমঙ্গলের ৫৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত যোগ করলে বৃহত্তর সিলেটে মোট বৃষ্টিপাতের রেকর্ড দাঁড়ায় ২০০৯ মিলিমিটার।

ঢাকার আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের রেকর্ড সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের পুরো জুন মাসের মধ্যে মোট ৬ দিন দেশের সর্বোচ্চ সংখ্যক বৃষ্টিপাত সিলেট অঞ্চলে হয়েছে। যে তারিখগুলো যথাক্রমে- ১৮ জুন ৩০৩ দশমিক ৮ মিলিমিটার, ৫ জুন ১৪৯ মিলিমিটার, ১৩ জুন ও ২৯ জুন দুই তারিখে একই পরিমাণ অর্থাৎ ১১১ মিলিমিটার, ৩ জুন ১৪৩ দশমিক ৬ মিলিমিটার এবং ১ জুন ২৯ মিলিমিটারের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছিল।

সিলেটের বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি বছরের পুরো জুন মাস জুড়ে সিলেট শহর এবং এর পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে ১৪৫৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। অপরদিকে শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানায়, জুন মাসে শ্রীমঙ্গলে ৫৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

সিলেট অঞ্চলের আবহাওয়া সহকারী অমর তালুকদার বাংলানিউজকে বলেন, চলতি বছরের ১ জুন থেকে ৩০ জুন সিলেট শহরজুড়ে রেকর্ডকৃত বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ১৪৫৬ দশমিক ২ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ সংখ্যায় বেশি বৃষ্টিপাতের তারিখগুলো হলো ১৮ জুন ৩০৩ দশমিক ৮ মিলিমিটার, ৩ জুন ১৪৩ দশমিক ৬ মিলিমিটার এবং ১৬ জুন ১০৮ দশমিক ৭ মিলিমিটার।

২০২১ সালের জুনের উদাহরণ উল্লেখ করে এ আবহাওয়া সহকারী আরও বলেন, গত বছরের জুন মাসে মাত্র ৬৭০ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। যা চলতি বছরের জুন মাসের বৃষ্টিপাত থেকে প্রায় সোয়া দুই গুণ কম। সেবছর সর্বোচ্চ সংখ্যায় বেশি বৃষ্টিপাতের তারিখগুলো ছিল ৪ জুন ১০৪ দশমিক ২ মিলিমিটার, ২৭ জুন ১০০ মিলিমিটার এবং ১৫ জুন ৩৮ দশমিক ৮ মিলিমিটার।

অপরদিকে, শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের আবহাওয়া পর্যবেক্ষক মুজিবুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, ২০২২ সালের পুরো জুন মাসে শ্রীমঙ্গলের ৫৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। ৮ জুন ১০৪ মিলিমিটার, ১৬ জুন ৫৯ মিলিমিটার এবং ১৮ জুন ৫৫ মিলিমিটার দিবস কেন্দ্রিক সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড। ২০২১ সালে পুরো জুন মাসের রেকর্ডকৃত বৃষ্টিপাত ছিল মাত্র ১৭২ মিলিমিটার।

সিলেট অঞ্চলের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমেদ চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের সিলেটে ইয়ারলি (বাৎসরিক) অ্যাভারেজ (গড়) রেইনফল (বৃষ্টিপাত) হলো ৪১৯৫ দশমিক ৯ মিলিমিটার। বৃষ্টি এখনো বর্ষাকালের তিন মাসসহ মোট ছয় মাস বাকি রয়েছে। তার মানে অ্যাভারেজ রেইনফলের চেয়ে খুব যে বেশি সিলেট বৃষ্টিপাত হবে তা বোধয় নয়। কারণ, পুরো মৌসুম বিবেচনায় বর্ষা শেষে দেখা যাবে, এই বৃষ্টিপাত ইয়ারলি অ্যাভারেজ রেইনফলের (বাৎসরিক গড় পরিসংখ্যান) কাছাকাছি হয়ে গেছে।

চলতি বছরের ছয় মাসে সিলেটের বৃষ্টিপাত বাৎসরিক গড় পরিসংখ্যান বিবেচনায় মোট বৃষ্টিপাতের ৫২ শতাংশ ইতোমধ্যে রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানান সাঈদ আহমেদ চৌধুরী।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৪ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২২
বিবিবি/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa