ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

ফুলে ফেঁপে একাকার যমুনা, প্রতিদিন নতুন এলাকা প্লাবিত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০২১
ফুলে ফেঁপে একাকার যমুনা, প্রতিদিন নতুন এলাকা প্লাবিত ...

ঢাকা: দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির কোনো লক্ষণ নেই। বিশেষ করে যমুনার পানি ফুলে ফেঁপে একাকার হয়ে গেছে।

প্রতিদিনই প্লাবিত হচ্ছে নতুন নতুন এলাকা। ফলে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে ১২ জেলার শত শত গ্রামের মানুষ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, ব্রহ্মপুত্র নদের পানির সমতল স্থিতিশীল আছে। অপরদিকে যমুনা নদীর পানির সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা সোমবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা নদীর পানির সমতল হ্রাস পাচ্ছে, অপরদিকে পদ্মা নদীর পানির সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা একই সময় পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার কুশিয়ারা ব্যতীত প্রধান নদীসমূহের পানির সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

ইতোমধ্যে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, জামালপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, শরিয়তপুর ও চাঁদপুর জেলার নিম্নাঞ্চল বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। সোমবার নাগাদ আরো অবনতি হতে পারে। এই সময়ে ঘণ্টায় তিস্তা নদীর পানির সমতল স্থিতিশীল থাকতে পারে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, বর্তমানে আটটি নদ-নদীর পানি ১৫টি স্থানে বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে। দুধকুমারের পানি পাটেশ্বরীতে বিপৎসীমার ১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ধরলার পানি কুড়িগ্রামে বিপৎসীমার ২৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারীতে ১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যমুনার পানি ফুলছড়িতে বিপৎসীমার ৫ সেন্টিমিটার বাহাদুরাবাদে বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, সারিয়াকান্দিতে ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, কাজিপুরে ২৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, সিরাজগঞ্জে ৩৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পোড়াবাড়িতে ৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, মথুরায় ৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, আরিচয়ায় ২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এছাড়া আত্রাইয়ের পানি বাঘাবাড়িতে বিপৎসীমার ৩৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ধলেশ্বরীর পানি এলাসিনে ৪০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পদ্মার পানি গোয়ালন্দে ৪৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ও সুরেশ্বরে ১৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পাউবো জানিয়েছে, বিভিন্ন নদ-নদীতে তাদের পর্যবেক্ষণাধীন ১০৯টি স্টেশনের মধ্যে রোববার (২৯ আগস্ট) ৫০টিতে পানির সমতল বেড়েছে। কমেছে ৫৩টি স্টেশনের পানির সমতল। অপরিবর্তিত আছে ছয়টি স্টেশনের পানির সমতল। আর ১৫টি স্টেশনের পানির সমতল বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৯০৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০২১
ইইউডি/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa