ঢাকা, শনিবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬ সফর ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

‘আপাতত’ বড় বানের আভাস নেই

ইকরাম-উদ দৌলা, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৪৯ ঘণ্টা, আগস্ট ৩, ২০২১
‘আপাতত’ বড় বানের আভাস নেই ফাইল ছবি

ঢাকা: কয়েক বছর ধরে বড় বন্যা দেখা দিলেও এবার মৌসুমে মাঝামাঝি সময়েও নেই তেমন কোনো আভাস। এটা একদিক থেকে সুখবর হলেও, শঙ্কা উড়িতে দিতে চায় না পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)।

সাধারণত দেশে জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বড় বন্যা হয়। এক্ষেত্রে জুন থেকে আগস্টেই বড় বন্যা বেশি হয়।

চলতি বছর পাহাড়ি ঢল আর অতিবর্ষণে স্বল্পমেয়াদি আকষ্মিক বন্যা ছাড়া তেমন প্লাবন হয়নি। আগস্টেও বড় বন্যার কোনো আভাস নেই। সেপ্টেম্বর কেটে গেলে এবার শঙ্কা কাটবে পুরোটা।

পাউবো জানায়, দেশে ২০১৩ সালে ছোট বন্যা হয়েছিল। এরপর প্রতি বছর বড় বন্যা হয়েছে। এর মধ্যে ২০১৬ ও ১৭ সালে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছিল। ২০২০ সালেও তিন দফা বন্যায় দেশে প্রায় অর্ধেক জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছিল। এক্ষেত্রে প্রতি বছরই জুন থেকে শুরু করে আগস্ট পর্যন্ত দু’তিন দিন বিরতি দিয়ে বন্যার পানি বেড়েছে। তবে ২০১৭ সালে মে মাসেই বন্যার পানি ঢুকেছিল লোকালয়ে। সে বছর আগাম বন্যায় পুরো হাওড় অঞ্চলের ফসল নষ্ট হয়ে ধানের দেশে ভাতের আকাল দেখা দিয়েছিল।

বাংলাদেশের বন্যার প্রধান কারণ সীমান্তবর্তী ভারতীয় রাজ্যগুলোতে অতি বৃষ্টি। এছাড়া চিন, নেপাল, ভুটান থেকে নেমে আসা পানিও দায়ী।

ভারত-বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস জানায়, আগস্ট-সেপ্টেম্বর টানা ভারী বর্ষণের শঙ্কা কম। এক্ষেত্রে বিরতি দিয়ে ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। এক্ষেত্রে দেশের উত্তর, উত্তর-পশ্চিম, উত্তর-পূর্ব ও মধ্যাঞ্চল ও পার্বত্য অঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। তবে তা হবে স্বল্প মেয়াদী।

পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বাংলানিউজকে বলেন, জুন-জুলাই পর্যন্ত বড় বন্যা হয়নি। এটা ভালো খবর। কেননা, করোনার মধ্যে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে কষ্টের সীমা থাকতো না। সামনে আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাস আছে। এই সময়টা কেটে গেলে, বড় বিপদ কেটে যাবে।

তিনি বলেন, চলতি মাসে উত্তর, উত্তর-পশ্চিম, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বৃষ্টিপাত বেড়ে গেলে বন্যা পরিস্থিতির দেখা দিতে পারে। সেটা স্বল্পমেয়াদি হওয়ার আভাস রয়েছে। তবে বড় বন্যার শঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। কেননা, সামনে দু’মাস আছে। এটাও লম্বা সময়। পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে কতক্ষণ। প্রকৃতির গতিবিধি এতো আগে যথাযথভাবে বলা যায় না। কারণ, আগস্টেও বড় বন্যা হওয়ার রেকর্ড আছে।

এ বিষয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, আগস্টে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের আভাস রয়েছে। উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাতজনিত স্বল্পমেয়াদি বন্যা হতে পারে। এছাড়া পার্বত্য অঞ্চলে দেখা দিতে পারে আকষ্মিক বন্যা।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০৩, ২০২১
ইইউডি/এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa