bangla news

শতাব্দী পর নেকড়েদের প্রত্যাবর্তন জার্মানিতে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০১-৩১ ১০:২৬:১৪ এএম

সুদীর্ঘ এক শতাব্দী পর জার্মানিতে প্রত্যাবর্তন করছে নেকড়েরা। প্রাণীবিজ্ঞানের জন্য এটি সুখের খবর হলেও মানুষ ও হিংস্র নেকড়েদের সহবস্থান ওইদেশে কতটা নিরাপদ হবে-তা নিয়েই এখন দুঃশ্চিন্তা।

ঢাকা: সুদীর্ঘ এক শতাব্দী পর জার্মানিতে প্রত্যাবর্তন করছে নেকড়েরা। প্রাণীবিজ্ঞানের জন্য এটি সুখের খবর হলেও মানুষ ও হিংস্র নেকড়েদের সহবস্থান ওইদেশে কতটা নিরাপদ হবে-তা নিয়েই এখন দুঃশ্চিন্তা।

দেশটিতে বর্তমানে ১০০ থেকে ১২০টি নেকড়ের অস্তিতের প্রমাণ পাওয়া গেছে, যা ২০১০ সালের তুলনায় প্রায় দ্বিগুন। জার্মানির ড্রেসড্রেন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োলজিস্ট নরম্যান স্টিয়ার সম্প্রতি গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত শতাব্দীতে জার্মানিতে নেকড়েরা একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু গত ২০ বছরে এরা আবার ধীরে ধীরে ফিরতে শুরু করেছে। প্রাণীবিজ্ঞানীরা মনে করছেন, দীর্ঘ সময় যুদ্ধের পর দুই জার্মানি একীভূত করার ফলে অনেক সেনানিবাস ফাঁকা হয়ে যায়। ফাঁকা হয়ে যাওয়া এসব সেনা ছাউনিতে আশপাশের দেশের বনভূমি থেকে এসে বাসা বাঁধতে শুরু করে নেকড়েরা। তবে দেশটির পূর্বাঞ্চলেই নেকড়ের সংখ্যা বেশি।

বায়োলজিস্ট নরম্যান স্টিয়ার মনে করেন, সময়ের বিবর্তনে হিংস্র নেকড়েরাও অনেকটা সহনশীল হয়ে উঠেছে, মনে হচ্ছে এরা মানুষের সাথে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান করবে। তবে উভয়েরই নিজ নিজ সীমানার মধ্যে থাকা সমীচীন হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৮ ঘণ্টা, ৩১ জানুয়ারি, ২০১২

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জলবায়ু ও পরিবেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2012-01-31 10:26:14