ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

সূর্যকিরণের স্থায়িত্বকাল বেড়েছে, ধানে ধরতে পারে পোকা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২১
সূর্যকিরণের স্থায়িত্বকাল বেড়েছে, ধানে ধরতে পারে পোকা ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: এক সপ্তাহের ব্যবধানে উজ্জ্বল সূর্যকিরণের স্থায়িত্বকাল প্রায় ৩ ঘণ্টা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ দশমিক ৮৩ ঘণ্টা। চলতি সপ্তাহেও এই ধারা অব্যাহত থাকার আভাস রয়েছে।

এ অবস্থায় বাড়তে পারে বোরো ধানে পোকার আক্রমণ।
 
কৃষি আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এমনটি জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফদর। সংস্থাটির উপ-পরিচালক এসএম মাহমুদুল হক জানান, আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত উজ্জ্বল সূর্যকিরণের স্থায়িত্বকাল হতে পারে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা। আর বাষ্পীভবন হতে পারে ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা।
 
এ সময়ের প্রথমার্ধে আংশিক মেঘলা আকাশসহ দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে। আর দ্বিতীয়ার্ধে ঢাকা, সিলেট, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের দু’এক স্থানে অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।  

এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে। সারাদেশে প্রথমার্ধে দিন ও রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে এবং দ্বিতীয়ার্ধে সামান্য হ্রাস পেতে পারে।
 
এ অবস্থায় বোরো চাষিদের জন্য বেশ কিছু পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে সেচ দিয়ে জমিতে প্রয়োজনীয় পানির স্তর বজায় রাখতে হবে। ব্যাকটেরিয়াজনিত পাতা পোড়া রোগ দেখা দিলে বন্ধ রাখতে হবে ইউরিয়া সারের উপরিপ্রয়োগ। রোগের প্রাথমিক অবস্থায় ৬০ গ্রাম এমওপি, ৬০ গ্রাম থিওভিট ১০ লিটার পানিতে মিশিয়ে ৫ শতাংশ জমিতে প্রয়োগ করতে হবে।
 
থোড় বের হওয়ার আগে রোগ দেখা দিলে বিঘা প্রতি ৫ কেজি পটাশ সার উপরিপ্রয়োগ করতে হবে। ব্যাকটেরিয়াজনিত পাতা পোড়া রোগ দমনে পর্যায়ক্রমে ভেজানো ও শুকানো পদ্ধতিতে সেচ ব্যবস্থাপনা অনুসরণ করতে হবে।
 
ব্লাস্ট রোগ দেখা দিলে রোগের প্রাথমিক অবস্থায় বিঘা প্রতি ৫ কেজি পটাশ সার উপরিপ্রয়োগ করতে হবে। ব্লাস্ট রোগ নিয়ন্ত্রণের জন্য রোগের প্রাথমিক অবস্থায় ট্রুপার/নেটিভে/জিল নামক ছত্রাকনাশক বিঘাপ্রতি ১০৭ মিলিলিটার, ১০০ লিটার পানিতে মিশিয়ে প্রয়োগ করতে হবে।
 
এছাড়া মাজরা পোকার আক্রমণ দেখা দিলে ডিমের গাদা সংগ্রহ করে নষ্ট করতে হবে, ব্যবহার করতে হবে আলোক ফাঁদ। আর আক্রমণ বেশি হলে অনুমোদিত বালাই নাশক ব্যবহার করতে হবে।
 
পাতা মোড়ানো পোকা দমনেও আলোক ফাঁদ ব্যবহার করতে হবে। ইউরিয়া সারের অতিরিক্ত ব্যবহার পরিহার করতে হবে। শতকরা ২৫ ভাগ পাতা ক্ষতি হলে সেভিন ৮৫ এসপি, ডার্সবান ২০ ইসি অথবা মিপসিন ৫ ডব্লিউপি এর যে কোনো একটি অনুমোদিত কীটনাশক সঠিক মাত্রায় প্রয়োগ করতে হবে।
 
থ্রিপস পোকার আক্রমণ দেখা দিলে আক্রান্ত জমিতে ব্যবহার করতে হবে নাইট্রোজেন জাতীয় সার। আর আক্রমণ বেশি হলে হেক্টর প্রতি ১.১২ লিটার ম্যালাথিয়ন অথবা ১.৭ কার্বারিল অথবা ১.১২ কেজি আইসোপ্রোকার্ব অথবা এমআইপিসি প্রয়োগ করতে হবে।
 
গত সপ্তাহে দেশে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল যশোরে ও খুলনায়, ৩৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিন্ম তাপমাত্রা শ্রীমঙ্গলে, ১৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৮৫৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২১
ইইউডি/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa