ঢাকা, সোমবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮ সফর ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

দু'টি নদী ছাড়া সকল নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২৬, ২০২০
দু'টি নদী ছাড়া সকল নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে

ঢাকা: দেশের বন্যা পরিস্থিতির আরো উন্নতি হয়েছে। বর্তমানে দু'টি ব্যতীত সকল নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে চলে এসেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী জানিয়েছেন, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও পদ্মা নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, অপরদিকে গঙ্গা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে; যা শুক্রবার (২৮ আগস্ট) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা বৃহস্পতিবার (২৭  আগস্ট) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। এই সময়ের মধ্যে মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ি ও ফরিদপুর জেলার নিম্নাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি ঘটতে পারে।

বর্তমানে দু'টি নদীর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পদ্মার পানি গোয়ালন্দে বুধবার (২৬ আগস্ট) সকালে বিপৎসীমার ১৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। আর ধলেশ্বরীর পানি এলাসিনে বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছিল।

পাউবোর পর্যবেক্ষণাধীন বিভিন্ন নদ-নদীর ১০১টি স্টেশনের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭২টিতে পানি উচ্চতা কমেছে। বেড়েছে ২৪টি স্টেশনে পানির সমতল। আর অপরিবর্তিত আছে ৫টি স্টেশনের পানির সমতল।

ভারতের আবহাওয়া অধিদফতরের বরাত দিয়ে পাউবো জানিয়েছে, বাংলাদেশের সীমান্তের কাছাকাছি ভারতের অঞ্চল- আসাম, মেঘালয়, ত্রিপুরা ও সিকিমে তেমন বৃষ্টিপাত হয়নি। এই অঞ্চলে বৃষ্টিপাত বাড়ার কারণেই এবার দেশে তিনবার বন্যা হয়েছে।

জুনের শেষ থেকে শুরু হওয়া বন্যায় এবার অন্তত ৩০টি জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত। পানি হয়ে পড়ে লাখ লাখ মানুষ। ফসলেরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এছাড়া বন্যা পরবর্তী ভাঙ্গনেও অনেকে সর্বস্বান্ত হন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২৬, ২০২০
ইইউডি/জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa