ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

জলবায়ু ও পরিবেশ

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঝলসে গেছে লজ্জাবতীর হাত

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৯ ঘণ্টা, আগস্ট ৪, ২০২০
বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঝলসে গেছে লজ্জাবতীর হাত বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঝলসে যাওয়া লজ্জাবতী বানর। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঝলসে গেছে বিপন্ন প্রজাতির লজ্জাবতী বানরের (Bengal Slow Loris) ডান হাত। পরে লজ্জাবতী বানরটিকে উদ্ধার করেছে বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশন।

মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) দুপুরে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল শহরের পূর্বাশা আবাসিক এলাকা থেকে লজ্জাবতী বানরটিকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে।  

শ্রীমঙ্গলে অবস্থিত বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব বাংলানিউজকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত লজ্জাবতী বানরটি উদ্ধার করা হয়েছে। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট বানরটির দু’টি হাতই ঝলসে গেছে। তবে বেশি ঝলসে যায় বানরটি ডান হাত। বানরটি এক হাতে ভর দিয়ে গাছে বা উঁচু স্থানে উঠতে পারছে না।

লাউয়াছড়াসহ আমাদের প্রাকৃতিক ছোট-বড় বনগুলোতে ক্রমেই খাদ্যশূন্য হয়ে পড়ছে। ফলে বন্যপ্রাণীরা খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে এসে প্রতিনিয়তই বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। এমন কি প্রাণনাশের স্বীকার হচ্ছে আমাদের মূল্যবান বন্যপ্রাণীরা বলে জানান সজল দেব।

লজ্জাবতী বানর নিশাচর এবং বৃক্ষচারী প্রাণী। সচরাচর একাকী কিংবা জোড়ায় থাকে। বাংলাদেশের সিলেট এবং চট্টগ্রামের মিশ্র চিরসবুজ বনে তাদের দেখা পাওয়া যায়। আইইউসিএন রেডলিস্ট অনুযায়ী লজ্জাবতী বানর বাংলাদেশে ‘বিপন্ন’ এবং বিশ্বে ‘সংকটাপন্ন’ প্রাণী।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৮ ঘণ্টা, আগস্ট ০৪, ২০২০
বিবিবি/আরআইএস/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa