ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ২৪ জুন ২০২১, ১৩ জিলকদ ১৪৪২

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

বন থেকে শহরে এসে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট বিপন্ন লজ্জাবতী বানর  

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫২ ঘণ্টা, জুন ৫, ২০১৯
বন থেকে শহরে এসে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট বিপন্ন লজ্জাবতী বানর   শ্রীমঙ্গল শহর থেকে উদ্ধার করা লজ্জাবতী বানর। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: শ্রীমঙ্গল থানার পেছনের সড়ক মাস্টারপাড়া আবাসিক এলাকার রাস্তা থেকে বিপন্ন প্রজাতির আহত একটি লজ্জাবতী বানরকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে প্রাণীটিকে উদ্ধার করেন শ্রীমঙ্গলে অবস্থিত বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব।  

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, শ্রীমঙ্গল থানার পাশের রাস্তার কারেন্টের তারে শক খেয়ে এ লজ্জাবতী বানরটি মাটিতে পড়ে যায়।

খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে গিয়ে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সেবা ফাউন্ডেশনে নিয়ে আসি।  

বানরটির অবস্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, এ লজ্জাবতী বানরটির অবস্থা তেমন ভালো নয়। সে শারীরিকভাবে অনেক দুর্বল হয়ে গেছে। প্রয়োজনীয় সেবাশুশ্রুষা করলে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।  

বনের খাদ্য সংকটের দিকটি বিশেষভাবে তুলে ধরে সজল দেব বাংলানিউজকে বলেন, শ্রীমঙ্গল শহর সংলগ্ন বনগুলোতে চলছে তীব্র খাদ্য সংকট। লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানসহ শ্রীমঙ্গল শহরের পার্শ্ববর্তী চা বাগানের টিলা ও পাহাড়ি বনভূমিতে প্রাণীদের খাদ্য আগের মতো পর্যাপ্ত পরিমাণে নেই। ফলে প্রাণীরা খাদ্যের আশায় শ্রীমঙ্গল শহরের দিকে চলে আসছে।  

বিপন্ন প্রজাতির বানর ‘লজ্জাবতী’। এর ইংরেজি নাম Bengal Slow Loris। এরা নিশাচর ও বৃক্ষচারী প্রাণী। খুব ধীর গতিতে এরা চলাচল করে। সাধারণত একাকী বা জোড়ায় থাকে। দিনের বেলা গাছের ডালে বা গর্তে গোলাকার হয়ে ঘুমায়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৭ ঘণ্টা, জুন ০৫, ২০১৯ 
বিবিবি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa