[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

এক-পেয়ে ভাত শালিকের গল্প

বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন, ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-০৮ ১২:৫৭:২২ পিএম
এক পা হারানো ভাত শালিক, ছবি: জালাল আহমেদ

এক পা হারানো ভাত শালিক, ছবি: জালাল আহমেদ

মৌলভীবাজার: প্রকৃতিতে এক পায়ের পাখি খুব কমই দেখা যায়। তবে তারা যে এক পা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে তা নয়। ডিম থেকে জন্ম নেয় দু’পা নিয়েই।

শিকারীর আক্রমণসহ কয়েকটি কারণে কোনো না কোনো পাখিকে হারাতে হয় একটি পা। এরপর এক পায়েই ভর করে শুরু হয় তার জীবন চলার পথ। খাদ্য সুনিশ্চিত থাকলে এক পা নিয়েই সুস্বাস্থ্য ও সবল হয়ে থাকে পাখিটি। লড়াই করে দু’পায়ের অন্যান্য পাখিদের মতো প্রকৃতিতে টিকে থাকতে।

এমনই এক-পেয়ে একটি ভাত শালিকের জীবনসংগ্রাম দেখেছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের স্কিল্ডস ফর অ্যামপ্লোয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রামের নির্বাহী পরিচালক এবং পাখি আলোকচিত্রী জালাল আহমেদ। সে গল্প তিনি করছিলেন বাংলানিউজের সঙ্গে।

জালাল বলেন, এই জীবনযোদ্ধার সঙ্গে আমার দেখা ঢাকার পূর্বাচলে। সেখান থেকেই ছবিগুলো তোলা। প্রথম ছবিতে পাখিটির বসার ভঙ্গি ছিলো অস্বাভাবিক, সন্দেহ হচ্ছিলো। যখন নিচে নামলো তখন দেখলাম যে একটি পা নেই। পূর্ণবয়স্ক এই ভাত শালিক জীবনযুদ্ধে টিকে আছে ভালোভাবেই। ভাত শালিক এর ইংরেজি নাম Common Mynaএক পা হারানো ভাত শালিক, ছবি: জালাল আহমেদআলোকচিত্রী জালাল আহমেদ বলেন, এই পাখিগুলো এক পা নিয়ে শিকারীর হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করে প্রকৃতিতে টিকে রয়েছে। কোনো অসুস্থ বা দুর্বল প্রাণী প্রকৃতিতে টিকে থাকতে পারে না। কেউ না কেউ তাকে খাবেই। কারণ, দুর্বল হলেই সে ধরা পড়বে। প্রকৃতি বা জঙ্গলে যে প্রাণীরা থাকবে তাকে সুস্থ-সবল থাকতে হবে।

জঙ্গলের নিয়ম হলো- যে উপযুক্ত সে-ই বেঁচে থাকবে। দুর্বলরা বেঁচে থাকতে পারবে না। এগুলোর মাঝে এই শালিক পাখিটা কিন্তু ব্যতিক্রম। এক পা হারিয়েও এই শালিকটা কিন্তু বেশ সুস্থ-সবল। অসুস্থ বা দুর্বল মনে হচ্ছে না তাকে- বলেন জালাল আহমেদ। 

পাখিটিকে প্রথম দেখার বিষয়ে তিনি বলেন, গাড়ি থেকে পাখিটির উপর চোখ পড়তেই দেখলাম সে গুটিয়ে বসে রয়েছে। এভাবে বসে থাকার মানে তার শারীরিক দুর্বলতা বা অস্বাভাবিকতা রয়েছে। আমি গাড়িতে বসেই এই ছবি দু’টো তুলেছি। পাখিটি রাস্তার পাশে লাউমাচায় বসেছিলো। তারপর সে নিচে নামলো এবং ছবি তুললাম।

এমন পাখিদের এক পা কাটা যাওয়ার কারণ হলো হয়তো তার পায়ে কামড় দিয়ে ধরেছিল বেজি বা অন্য কোনো প্রাণী। তখন সে নিজেকে ছুটিয়ে ফেলেছে। কিন্তু তার পা-টা ছিঁড়ে গেছে। আবার তার পায়ে মানুষের মাথার চুল বেঁধে গিয়ে ধীরে ধীরে সেই পা-টা কেটে যেতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৮
বিবিবি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মৌলভীবাজার জীববৈচিত্র্য
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache