ঢাকা, বুধবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

জলবায়ু ও পরিবেশ

হাইল হাওরে পোড়ানো হলো ১০ লাখ টাকার অবৈধ জাল

এনভায়রনমেন্ট স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১৫
হাইল হাওরে পোড়ানো হলো ১০ লাখ টাকার অবৈধ জাল ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার): মৌলভীবাজারের হাইল হাওরে প্রায় ১০ লাখ টাকার বিভিন্ন প্রকারের অবৈধ জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দিনব্যাপী শ্রীমঙ্গল উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এতে নেতৃত্ব দেন জেলা ডেপুটি রেভিনিউ কালেক্টার (আরডিসি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কে এম সালাহউদ্দিন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নুরুল হুদা, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার মাহবুবুর রহমান খান, শ্রীমঙ্গল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাব্বি প্রমুখ।

অভিযানে গোপলা নদীর চতুর্থ খণ্ড, চেংরাছড়া, বুদা, সানন্দা বিল, বসনীর খাল, বইশা, কাজী কাটা এলাকা থেকে প্রায় চার একর জলমহালের উপর স্থাপিত অবৈধ জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ফেলা হয়।

মাহবুবুর রহমান খান বাংলানিউজকে বলেন, এর আগে পহেলা ডিসেম্বর মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে চেয়ারম্যান, স্থানীয় মেম্বার, লিজ হোল্ডার এবং স্থানীয় মৎস্যজীবীদের সমন্বয়ে আয়োজিত অবহিতকরণ সভায় অবৈধ জাল সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। কিন্তু অবৈধ দখলদার‍রা তাদের জালগুলো অপসারণ করেনি।

জানা যায়, মির্জাপুর ইউনিয়ের ইউপি সদস্য মনু মিয়া হাইল হাইরের বিশাল এলাকা অবৈধভাবে দখল করে আছেন। তার নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধচক্র হাইল হাইরে অবৈধভাবে জাল ফেলে দীর্ঘদিন থেকে মাছ আটকে রেখেছিল। ফলে সাধারণ মৎস্যজীবীরা বিলে জাল ফেলতে পারতো না।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১৫
বিবিবি/এটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।