ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ জুলাই ২০১৯
bangla news
মিডিয়া মিটস ক্লাইমেট

কক্সবাজারে ২ দিনের জলবায়ু সাংবাদিকতা সংলাপ শুরু শুক্রবার

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৩-০১-০৯ ৭:৫৩:১৮ এএম

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সাংবাদিকতার ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ কি হতে পারে; আর সে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় করণীয় কী তা নিয়ে আলোচনা করতে শুক্রবার থেকে বাংলাদেশে শুরু হচ্ছে দুইদিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সংলাপ।

ঢাকা: জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সাংবাদিকতার ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ কি হতে পারে; আর সে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় করণীয় কী তা নিয়ে আলোচনা করতে শুক্রবার থেকে বাংলাদেশে শুরু হচ্ছে দুইদিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সংলাপ।

বিশ্বের বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে এ সংলাপে বসবেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত সাংবাদিক ও শিক্ষক ও পরিবেশ গবেষকরা।  

১১ ও ১২ জানুয়ারি কক্সবাজারের ওশেন প্যারাডাইজ হোটেলে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে। নরওয়েভিত্তিক মিডিয়া ক্লাইমেট নেটওয়ার্ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ যৌথভাবে এ সংলাপের আয়োজন করছে।

‘মিডিয়া মিটস ক্লাইমেট’ শীর্ষক এ সংলাপে যোগ দেবেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নরওয়ের রাষ্ট্রদূত ৠগনে বার্টে লান্ড, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধাপক আআমস আরেফিন সিদ্দিক, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক আখতার সুলতানা, ফিনল্যান্ডের প্যামপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রিস্টো কুনেলিয়াস, যুক্তরাজ্যের দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকার সাংবাদিক জন ভাইড্যাল, মিডিয়া ক্লাইমেট নেটওয়ার্কের কো-চেয়ারপার্সন অধ্যাপক এলিজাবেথ আইডে ও কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মফিজুর রহমান।

মফিজুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, মূলত সংবাদমাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টি আরও গুরুত্বের সঙ্গে উপস্থাপন এবং তার মাধ্যমে এ বিষয়ে সবমহলে সচেতনতা বৃদ্ধিই হবে এই সংলাপ কর্মসূচির মূল লক্ষ্য। তিনি বলেন, সংবাদমাধ্যগুলো এরই মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুতে কাজ করছে। তবে সমন্বয়ের অভাব রয়েছে রয়েছে কার্যকর কিছু উদ্যোগের অভাব। সাংবাদিকদের মধ্যে বিষয়টি অনুধাবনেও কিছুটা ঘাটতি রয়ে গেছে। এসব বিষয়ে বিস্তারিত ‍আলোচনা করতেই মিডিয়া ক্লাইমেট নেটওয়ার্ক এই উদ্যোগ নিয়েছে।

সংলাপের প্রথম দিনে জলবায়ু পরিবর্তনের বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট নিয়ে আলোচনা করবেন ভারতের থার্ড পোলের জলবায়ু গবেষক জয়দীপ গুপ্ত ও দ্য গার্ডিয়ান সাংবাদিক জন ভাইড্যাল। হিমালয়ের বরফ গলা নিয়ে সালমান সাঈদের প্রামাণ্যচিত্রের ওপর আলোচনা করবেন মফিজুর রহমান।

এইদিন চারটি পৃথক বিষয়ের ওপর অনুষ্ঠিত হবে চারটি অধিবেশন। বাস্তবচিত্র ও ভবিষ্যত পরিবর্তন তুলে ধরতে ফটোসাংবাদিকদের চ্যালেঞ্জ নিয়ে আলোচনা করবেন গণযোগাযোগ ও সাবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক সাইফুল হক ও নেপাল থেকে আগত সাংবাদিক দীপেশ শ্রেষ্ঠা। সঞ্চালকের দায়িত্বে থাকবেন জার্মানি থেকে আগত সাংবাদিক ওলিভার হান।

জলবায়ূ পরিবর্তন সাংবাদিকতা নিয়ে আলোচনা করবেন নরওয়ে থেকে আগত সাংবাদিক লাইজ ম্যারিট কালস্টাড, নেপালের সাংবাদিক কৃতি ভুজু ও বাংলাদেশের একাত্তর টেলিভিশনের স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ফারজানা রূপা। এই অধিবেশন সঞ্চালনা করবেন সুইডেনের সাংবাদিক আনা রুজভাল।

জলবায়ূ বিজ্ঞান সমঝোতা ও পর্যবেক্ষণ সাংবাদিকতা: জলবায়ূ পরিবর্তন বিষয়ে সাংবাদিকের অ্যাডভোকেসি নিয়ে আলোচনা করবেন নরওয়ের সাংবাদিক এরিক মারটিনিউসেন, পাকিস্তানের ইতরাত বশির আহমেদ ও বাংলাদেশের বৈশাখী টেলিভিশনের চিফ নিউজ এডিটর রাহুল রাহা। এই অধিবেশনে সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করবেন মফিজুর রহমান।

মূলধারার সংবাদ মাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমগুলোর মধ্যে জলবায়ু সাংবাদিকতায় অভিজ্ঞতার ভিন্ন আঙ্গিক নিয়ে কথা বলবেন নরওয়ের সাংবাদিক অ্যান্ড্রিয়াস ইটারস্টাড ও বাংলাদেশের বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর হেড অব নিউজ মাহমুদ মেনন। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করবেন যুক্তরাষ্ট্রের সাংবাদিক আড্রিয়ানে রাসেল।

এসব অধিবেশনের পর প্লেনারি সেশনে জলবায়ূ পরিবর্তন: বাংলাদেশের অবস্থান নিয়ে কথা বলবেন ঢাকায় অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস এর ব্যুরো চিফ ফরিদ হোসেন।

সংলাপের দ্বিতীয় দিনে থাকবে ‘মিডিয়া মিটস ক্লাইমেট: দ্য চ্যালেঞ্জ ফর গ্লোবাল জার্নালিজম’ নামে একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন। ফিনল্যান্ডের প্যামপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রিস্টো কুনেলিয়াস ও মিডিয়া ক্লাইমেট নেটওয়ার্কের কো-চেয়ারপার্সন অধ্যাপক এলিজাবেথ আইডে যৌথভাবে এ বইটি লিখেছেন।

এই দিনেও চলবে চারটি কর্ম অধিবেশন। উন্নয়ন পদ্ধতি ও কোটা পদ্ধতিতে বৈশ্বিক জলবায়ু সংরক্ষণের বিষয়ে আলোচনা করবেন নরওয়ের অ্যাটল অ্যান্ডারসন ও অস্ট্রেলিয়ার ফিলিপ চাব।

জলবায়ুর পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে কিভাবে সমাজের অবহেলিত ও দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের কাছে পৌঁছানো যায়, তা নিয়ে আলোচনা করবেন ইন্দোনেশিয়ার ওনি সারওয়ানো, পাকিস্তানের জারকা এস আলি,  সুইডেনের অ্যানা রুজভেল্ট, নরওয়ের ক্রিস্টিন স্কেয়ার অর্গেরেট ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতার শিক্ষক সাবরিনা সুলতানা।

রাজনৈতিক নেতৃত্ব ও জলবায়ুর পরিবর্তন বিষয়ে আলোচনা করবেন ফিনল্যান্ডের রিস্টো কুনেলিয়াস, নরওয়ের আইভিন্ড মোল্ড, অস্ট্রেলিয়ার ফিলিপ চাব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক আখতার সুলতানা ও জনকণ্ঠের সাংবাদিক কাওসার রহমান।

জনসাধারণের কাছে পৌঁছানোর জন্য আগামী দিনের পন্থা নিয়ে আলোচনা করবেন নরওয়ের ম্যারি ভাতু্ম, ইন্দোনেশিয়ার উন্টুং উইদ্যান্তো, ব্রাজিলের ক্যারোলিন ডি’আইজেন ও পাকিস্তানের জারকা এস আলি।

এই দিনের প্লেনারি সেশনে জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে দারিদ্র্যের সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করবেন ইন্দোনেশিয়ার স্টিভি এমিলিয়া, পাকিস্তানের তানভির শাহজাদ, মিশরের ইব্রাহিম সালেহ ও বাংলাদেশের দ্য ডেইলি স্টারের পিনাকি রায়।

বাংলাদেশ সময়: ১২২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০১৩
সম্পাদনা: হাসান শাহরিয়ার হৃদয়, নিউজরুম এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জলবায়ু ও পরিবেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2013-01-09 07:53:18