ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ মে ২০১৯
bangla news

লংগদুতে বিলুপ্তপ্রায় ঈগল পাখি উদ্ধার!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-১২-২৮ ৮:২০:৩৩ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাঙামাটির লংগদু উপজেলার পাহাড়ি এলাকায় বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির একটি ঈগল পাখি পাওয়া গেছে। লংগদু ঝুম নিয়ন্ত্রণ বন বিভাগ উল্টাছড়ি রেঞ্জের কর্মকর্তা বাংলানিউজকে জানান, লংগদু সদর ইউনিয়নের দোজরপাড়া এলাকায় পাহাড়ি লোকজনের হাতে বৃহস্পতিবার ঈগল পাখিটি ধরা পড়ে।

রাঙামাটি: রাঙামাটির লংগদু উপজেলার পাহাড়ি এলাকায় বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির একটি ঈগল পাখি পাওয়া গেছে।

লংগদু ঝুম নিয়ন্ত্রণ বন বিভাগ উল্টাছড়ি রেঞ্জের কর্মকর্তা বাংলানিউজকে জানান, লংগদু সদর ইউনিয়নের দোজরপাড়া এলাকায় পাহাড়ি লোকজনের হাতে বৃহস্পতিবার ঈগল পাখিটি ধরা পড়ে। শুক্রবার লোক মারফত খবর পেয়ে পাখিটি নিয়ে আসা হয়।

তিনি জানান, এটি ‘ঈগল’ প্রজাতির পাখি। এ প্রজাতির পাখিটি এখন বিলুপ্তপ্রায়। এর ওজন সাড়ে ৯ কেজি। উচ্চতা আড়াই ফুটের মতো। এর পাখা দুটি বেশ বড়। গায়ের রং ধূসর বাদামি বর্ণের। সাপ, ব্যাঙ, মাছ ও বিভিন্ন পোকা জাতীয় প্রাণী এরা বেশি খেয়ে থাকে।

উল্টাছড়ি রেঞ্জের কর্মকর্তা জানান, পার্বত্য চট্টগ্রামে এক সময় এ প্রজাতির ঈগল বেশি দেখা যেতো। এখন এটি বিলুপ্তপ্রায়। গভীর অরণ্যে এদের বসবাস। লোকজনের হাতে ধরা পড়া ঈগল পাখিটি আহত ছিল।

তিনি জানান, স্থানীয় ডাক্তারে সহযোগিতায় ঈগলটির পাখনার নিচ থেকে দুটি ছোররা গুলি বের করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, কেউ শিকারের জন্য পাখিটিকে গুলি করেছিল।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে বন বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পরামর্শ অনুযায়ী পাখিটির চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ঈগলটি এখন খাবার খাচ্ছে। তবে এখনও বেশি লোকজন দেখলে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

এদি,েক ঝুম নিয়ন্ত্রণ বন বিভাগ লংগদু উল্টাছড়ি রেঞ্জের মাইনীমুখ অস্থায়ী অফিসে ঈগল পাখিটিকে দেখার জন্য শত শত লোকজনকে ভিড় করতে দেখা গেছে।

বাংলাদেশ সময়:  ১৯১১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮,২০১২
সম্পাদনা: আশিস বিশ্বাস, অ্যাসিস্ট্যান্ট আউটপুট এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জলবায়ু ও পরিবেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2012-12-28 08:20:33