ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০, ২০ জিলহজ ১৪৪১

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

‘হাট্টি মাটিম টিম / তারা মাঠে পাড়ে ডিম’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১২
‘হাট্টি মাটিম টিম / তারা মাঠে পাড়ে ডিম’

ঢাকা: অস্ট্রেলিয়ায় কুইন্সল্যান্ডের টাউনসভিলা শহরে পারিবারিক ক্ষেতের ভেতর থেকে ৯টি ডিমের সন্ধান পায় তিন বছর বয়সী কাইলি কামিন্স। তারপর সেগুলোকে একটি প্লাস্টিকের বাক্সে ভরে সবার অলক্ষ্যে নিজ ঘরের একটি গোপনস্থানে রেখে দেয় কাইলি।

কিন্তু তখনো সে বুঝে উঠতে পারেনি ডিমগুলো কিসের! এরপর আর বাক্সটিতে হাত দেয়নি কাইলি। হয়তো সে ভুলেই গিয়েছিলো সেটির কথা!

কিছুদিন পর ছেলে কাইলির ঘর পরিষ্কার করতে গিয়ে ঐ প্লাস্টিকের বাক্সটির সন্ধান পান মা ডোনা সিম। বাক্সটি খুলেই হতবাক হয়ে যান তিনি।

৯টি ডিমের মধ্যে থেকে ৭টি ডিম ফুঁটে বেরিয়েছে জলজ্যান্ত অস্ট্রেলীয় পশ্চিমা বাদামি সাপ। এর ভেতর দুইটি সাপ ইতোমধ্যেই বড় হয়ে উঠেছে। উল্লেখ্য, বিশ্বের অন্যতম বিষধর সাপ হচ্ছে পশ্চিমা বাদামি সাপ এবং দেশটিতে প্রতিবছর গড়ে তিনজন সাপের কামড়ে মারা যায়। আর এ জন্য দায়ী করা হয় অত্যন্ত বিষধর প্রজাতির বাদামি সাপকে।

মৃত্যুমান আতঙ্ক স¦চক্ষে অনুভব করার পর একটু ধাতস্থ হয়ে ডোনা সান্তনা পান এই ভেবে যে, অনেক কিছুই হতে পারতো, তবে ভাগ্যিস বাক্সটি বন্ধ ছিলো। পরে সেই বাক্সটি স্থানীয় উত্তর কুইন্সল্যান্ডের বন্যপ্রাণী পরিচর্যা কেন্দ্রে হস্তান্তর করেন ডোনা সিম।

এ ব্যাপারে পরিচর্যা কেন্দ্রের সরীসৃপ বিশেষজ্ঞ ট্রিশ প্রেন্ডারগাস্ট বলেন, কাইলি যদি কোনো ক্রমে বাক্সটি খুলতো, তবে তার তৎক্ষণাৎ মৃত্যু হতে পারতো! বড়ো বাঁচা বেঁচে গেছে সে!

প্রেন্ডারগাস্ট আরো জানান, প্রত্যেকটি সাপই প্রায় ৫ থেকে ৬ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা। তাদের প্রবৃদ্ধি দেখে মনে হয়েছে তারা হয়তো ঘটনার পাঁচ দিন আগে ডিম থেকে বেরিয়েছে। তবে পূর্ণবয়স্ক সাপের মতোই তারা বিষধর।

বাংলাদেশ সময় : ১৮৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১২
সম্পাদনা : সুমন পাল, নিউজরুম এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa