ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সরকারি হচ্ছে ১২টি কলেজ

সোহেল রহমান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২২ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১১
সরকারি হচ্ছে ১২টি কলেজ

ঢাকা: সরকারি করা হচ্ছে দেশের ১২টি বেসরকারি কলেজ। শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া অনুন্নত অঞ্চলগুলোয় স্বল্প খরচে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে সরকার এ উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে।



এরইমধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) পরিদর্শক দল সরজমিনে কলেজগুলো পরিদর্শন শেষে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে পরিদর্শন প্রতিবেদন দাখিল করেছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়।

যেসব কলেজ সরকারি করা হচ্ছে সেগুলোর মধ্যে আছে ফরিদপুরের মধুখালীর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ আবদুর রউফ ডিগ্রি কলেজ, যশোরের শার্সা উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ নূর মোহাম্মদ ডিগ্রি কলেজ, ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ হামিদুর রহমান কলেজ, সাতক্ষীরারর শ্যামনগর মহসীন কলেজ, খুলনার দাকোপ উপজেলার এলবিকে ডিগ্রি কলেজ, ঢাকার বঙ্গবন্ধু কলেজসহ দেশের উত্তারাঞ্চলের আরও ছয়টি কলেজ।

তবে চট্টগ্রাম, সিলেট ও কুমিল্লা অঞ্চলে আপাতত কোনো কলেজ সরকারি হচ্ছে না বলে জানা গেছে।  

কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসংখ্যা, অবকাঠামোগত অবস্থা , পর্যাপ্ত স্থান, শিক্ষক সংখ্যা, একাডেমিক ভবনসহ শিক্ষার সার্বিক পরিবেশের ওপর ভিত্তি করে মাউশির পরিদর্শক দল বেসরকারি কলেজগুলোকে সরকারিকরণের জন্য প্রতিবেদন তৈরি করে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছেন।

সরকারি করা হলে শিক্ষার্থীদের উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে সাতক্ষীরার শ্যামনগর মহসীন কলেজের অধ্যক্ষ জিএম ওসমান গনি বাংলানিউজকে বলেন, আইলা দূর্গত এই এলাকায় অধিকাংশ শিক্ষার্থী দরিদ্র। শ্যামনগর উপজেলায় কোনো সরকারি কলেজ না থাকায় অর্থনৈতিক ও গুণগত শিক্ষার ক্ষেত্রে মেধাবী শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হচ্ছে। তার কলেজকে সরকারি করা হলে শিক্ষার্থীদের এ দুর্ভোগ লাঘব হবে বলে তিনি জানান।

একই অভিমত ব্যক্ত করেন যশোরের শার্সার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ নূর মোহাম্মদ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল হাসান। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, ‘সরকারি হলে মেধাবীদের একটা ক্ষেত্র হবে এখানে। ’

দেশে বর্তমানে সরকারি কলেজ রয়েছে ২৫৩টি। এছাড়া ৪টি সরকারি মাদরাসা, ১৬টি কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউট এবং ১৪টি সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ রয়েছে।

বর্তমানে কলেজগুলোর সম্পত্তি সরকারের কাছে হস্তান্তর ও আর্থিক বরাদ্দের বিষয়টি মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়।

সরকারিকরণের পর প্রতিষ্ঠানগুলোতে কর্মরত শিক্ষকরা প্রয়োজনীয় যোগ্যতা থাকা সাপেক্ষে সরকারের বিসিএস ক্যাডারের অন্তর্ভূক্ত হবেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নোমান-উর-রশীদ বাংলানিউজকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আমারা ১২টি বেসরকারি কলেজ সরকারীকরণের জন্য পরিদর্শন শেষে প্রতিবেদন জমা দিয়েছি। ’

তিনি বলেন, ‘মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করা, এলাকাভিত্তিক শিক্ষার সমতা ও শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সরকারি করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১০ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয় এর সর্বশেষ

Alexa