ঢাকা, সোমবার, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ জুলাই ২০২১, ১৫ জিলহজ ১৪৪২

ক্যারিয়ার

তরুণ বয়সেই ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ করছেন শাকিল

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০২০
তরুণ বয়সেই ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ করছেন শাকিল শাকিল

বছর চারেক আগের কথা অর্থাৎ ২০১৬ সালে ফেসবুকের এক বন্ধুর হাত ধরে জাতীয় একটি অনলাইন পোর্টালে শিশু সাংবাদিকতার সাইট ‘হ্যালো’তে কাজ শুরু করেন মাগুরার ছেলে শাকিলুর রহমান। সেই শুরু থেকেই ‘হিজড়া শিশুরা কষ্টে আছে’ ও ‘ভিক্ষেনির্ভর মুক্তিযোদ্ধার জীবন’, ‘বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে হাট’ এবং ‘সোনাপুর বাঁশের সাঁকোর বেহাল অবস্থা’- এমন কিছু সংবাদ প্রকাশের পর বেশ সুনাম অর্জন করেন শাকিল।

২০১৮ সালে মনোনীত হয়েছিলেন মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ডের সংবাদ বিভাগে পুরস্কারের জন্য।

শাকিল মাধ্যমিক শেষ করে শিশু সাংবাদিকতার পাঠ চুকিয়ে আসেন ঢাকায়। প্রথম সারির জাতীয় দৈনিক ও বেশ কিছু অনলাইন পোর্টালে বিনোদন সাংবাদিক হিসেবে কাজ করেন কয়েক বছর। এরপর ভাবলেন চলচ্চিত্রের ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের করবেন। সেই ভাবনা সেই কাজ, কয়েকজন উদ্যোমী তরুণের সাহায্যে ধীরে ধীরে গড়ে তুলেছেন এসকে মিডিয়া।

তরুণ উদ্যোক্তা শাকিলুর রহমান বলেন, ‘আমাদের দেশে সিনেমা নিয়ে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের সুযোগ খুব একটা নেই। ভাবলাম এটাই করি। তাই বেশ কয়েকজন মিলে এসকে মিডিয়া গড়ে তুলি। ‘নোলক’ সিনেমার মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে এসকে মিডিয়ার ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের যাত্রা শুরু। এরপর একে একে বেশ কিছু সিনেমার মার্কেটিংয়ের কাজ শেষ করি। তারপর আস্তে আস্তে ওয়েব সিরিজ, নাটক ও মিউজিক ভিডিও নিয়ে কাজ করি। ’

তিনি আরও বলেন, ‘সম্প্রতি আমাদের ওয়েবসাইট এসেছে। তাছাড়া অ্যাপস ডেভেলপমেন্টের কাজ চলছে। বিনোদন, খেলাধুলা, তথ্য প্রযুক্তি, ভ্রমণ, সাহিত্যসহ আরও বেশকিছু বিভাগ নিয়ে কাজ করছে এসকে মিডিয়া।

শাকিল বলেন, ‘করোনাকালীন ঘরবন্দি সময়ে দর্শকদের বিনোদন দিতে জনপ্রিয় অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের ফেসবুক লাইভে এনে আড্ডার ব্যবস্থা করেছি। এরপর পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে ‘জনতার চোখে মানবিক পুলিশ’ নামের একটি সাক্ষাৎকারভিত্তিক ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠান করি, যা বেশ সাড়া ফেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ’

‘আগামীতে আমাদের নতুন একটি প্রজেক্ট শুরু করবো। যেখানে একসঙ্গে বড়পর্দা ও ছোটপর্দার নির্মাতা, অভিনেতা-অভিনেত্রীদের জীবনের গল্প তুলে ধরা হবে। শিগগিরই এটি এসকে মিডিয়ার ফেসবুক পেজে ও ইউটিউবে প্রকাশ হবে।  

উদ্যোক্তা এই তরুণ আরও বলেন, ‘আমাদের যাত্রা এতটা সহজ ছিল না। আমাদের টিম মেম্বারদের কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। যার ফলে এখন মোটামুটি একটা ভালো অবস্থান তৈরি হয়েছে। অনেকে নতুন কাজের অফার দিচ্ছেন। তাছাড়া আমাদের আয়ও সন্তোষজনক। বিশ্বাস নিয়ে কাজ করছি যে, সিনেমা ও সংস্কৃতির সুদিন আবার ফিরবে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৬, ২০২০
/ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa