ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

ক্যারিয়ার

কমেছে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, নেই নতুন কর্মীর সন্ধান: এডিবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪১ ঘণ্টা, মে ২৯, ২০২০
কমেছে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, নেই নতুন কর্মীর সন্ধান: এডিবি

ঢাকা: করোনা ভাইরাসের প্রভাবে থমকে গেছে বৈশ্বিক অর্থনীতি। বাংলাদেশেও পড়েছে এর নেতিবাচক প্রভাব। ফলে চাকরির সুযোগ কমে যাচ্ছে। নিয়োগদাতারা এখন নতুন কর্মীর সন্ধান তেমন একটা করছেন না।

শুক্রবার (২৯ মে) ‘কোভিড-১৯ ইমপ্যাক্ট অন জব পোস্টিংস: রিয়েল টাইম অ্যাসেসমেন্ট ইউজিং বাংলাদেশ অ্যান্ড শ্রীলঙ্কা অনলাইন জব পোর্টালস’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এডিবি। সংস্থাটির বহিঃসম্পর্ক বিভাগের টিম লিডার গোবিন্দ বার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

      

প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বৃহত্তম অনলাইন জব পোর্টাল বিডিজবসের তথ্য উপাত্ত ব্যবহার করা হয়েছে। আর শ্রীলঙ্কার টপজবসডটএলকের তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। শ্রীলঙ্কার এই পোর্টালে গত এপ্রিল মাসে অনলাইনে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কমেছে ৭০ শতাংশ।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিপি) করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের চাকরি খোঁজার পোর্টালে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পরিস্থিতি নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা গেছে, গত এপ্রিল মাসে এই অনলাইন পোর্টালে আগের বছরের এপ্রিলের তুলনায় ৮৭ শতাংশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কমেছে।

অনলাইনে পোর্টালের মাধ্যমে চাকরি খোঁজা এখন দেশের তরুণ প্রজন্মের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। এডিবি বলছে, বাংলাদেশের অনলাইন জবপোর্টালের নেতৃত্ব দেওয়া বিডিজবসে ২০১৯ সালে ৬০ হাজারের বেশি চাকরির বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। পোর্টালটির ভিজিটর সংখ্যা প্রতিদিন গড়ে দুই লাখ। এডিবির ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত মার্চের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কমতে থাকে। গত ডিসেম্বর ও জানুয়ারিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির সংখ্যা তেমন একটা কমেনি। ফেব্রুয়ারি মাসে অবশ্য কিছুটা কমেছে। এডিবি বলছে, গত এপ্রিল মাসে আগের বছরের এপ্রিলের তুলনায় ৮৭ শতাংশ কম নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এসেছে। আর মার্চ মাসে তা ছিল ৩৫ শতাংশ।

কোন খাতে কত শতাংশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি থাকে, এর চিত্রও তুলে ধরা হয়েছে এডিবির ওই প্রতিবেদনে। এডিবি বলছে, বিডিজবসে যত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়, তার মধ্যে ১৫ শতাংশ করে বস্ত্র খাত এবং বেসরকারি সংস্থার (এনজিও) চাকরিসংক্রান্ত। এছাড়া উৎপাদন খাতের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি থাকে ১৩ শতাংশ।

করোনার কারণে কোন খাতে কত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কমেছে, সেটাও দেখিয়েছে এডিবি। এডিবি বলছে, গত এপ্রিল মাসে আগের বছরের একই মাসের তুলনায় বস্ত্র খাতে ৯৫ শতাংশ চাকরির বিজ্ঞপ্তি দেওয়া কমেছে। উৎপাদন খাতে এই কমার প্রবণতা ৯২ শতাংশ।

এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, করোনা পরিস্থিতির কারণে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে পোশাকসহ অন্যান্য পণ্য রপ্তানিতে বড় ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে, এই শঙ্কায় এসব খাতে নতুন নিয়োগ দেওয়ার চিন্তা কমেছে।

একইভাবে স্বাস্থ্য ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কমেছে যথাক্রমে ৮২ ও ৮১ শতাংশ। এনজিও খাতে নতুন লোকের সন্ধান কমেছে ৬৪ শতাংশ। এডিবি মনে করে, করোনার কারণে নানা ধরনের সহযোগিতা কার্যক্রম অব্যাহত থাকায় এনজিও খাতে অন্য খাতের মতো জোরালো প্রভাব পড়েনি।

এডিবি বলছে, অনলাইনে চাকরির আবেদনের ক্ষেত্রে গত মার্চ মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৬৩ শতাংশ এবং এপ্রিলে ১৯ শতাংশ কমেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪১ ঘণ্টা, মে ২৯, ২০২০
এমআইএস/এইচএডি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa