ঢাকা, রবিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৫ মহররম ১৪৪৪

বইমেলা

ক্রেতার চেয়ে দর্শনার্থী বেশি, চিন্তিত নন প্রকাশকরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৮
ক্রেতার চেয়ে দর্শনার্থী বেশি, চিন্তিত নন প্রকাশকরা বইমেলায় ক্রেতার পাশাপাশি দর্শনার্থীরাও রয়েছেন-ছবি-শাকিল আহমেদ

অমর একুশে গ্রন্থমেলা থেকে: অমর একুশে গ্রন্থমেলার ষষ্ঠ দিনে (৬ ফেব্রুয়ারি) মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে ঘুরে বই দেখছেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা। তবে ক্রেতার থেকে দর্শনার্থীদের সংখ্যাই বেশি বলে জানালেন বিভিন্ন প্রকাশনীর বিক্রয় প্রতিনিধিরা। এতে মোটেও চিন্তিত নন তারা। তাদের মতে, মাত্র ছয়দিন হয়েছে মেলার বয়স। আর একসপ্তাহ গেলে প্রতিদিনই ব্যাপক ক্রেতা আসবে। তবে এখনও যা বিক্রি হচ্ছে তা মন্দ নয়।

একই কথা জানালেন বিভিন্ন প্রকাশনীর প্রকাশকরা। তাদের মতে মেলায় ভিড় ছিল, তবে তাদের মধ্যে ক্রেতা অনেক কম।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, মেলায় আগতদের মধ্যে অধিকাংশ তরুণ-তরুণী। দুপুর থেকে রাত অবধি বইকেনার চেয়ে তারা গল্প-আড্ডায় মেতেছেন বেশি। এমনকি বইমেলার শেষ সময় রাত ৯টার কিছু পরেও অনেককেই দেখা গেছে মেলা প্রাঙ্গণের বেঞ্চে বসে গল্প করতে।

তবে এদের মধ্যে কেউ কেউ বই কেনার জন্যেও এসেছেন। লিস্ট হাতে খুঁজে বেড়িয়েছেন প্রকাশনী আর স্টল নম্বর।

এদিকে বাংলা একাডেমির জনসংযোগ বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার মেলায় নতুন বই প্রকাশ হয়েছে ১৩৮টি।

বইমেলায় ক্রেতার পাশাপাশি দর্শনার্থীরাও রয়েছেন-ছবি-শাকিল আহমেদএদিন বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ‘অশ্বিনীকুমার দত্ত: জীবন ও কর্ম’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বদিউর রহমান। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন আসাদ চৌধুরী, সৈয়দ বদরুল আহ্সান, ড. জালাল আহমেদ এবং মো. মনিরুজ্জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ।

বদিউর রহমান বলেন, অশ্বিনীকুমার দত্ত ছিলেন একাধারে মানবপ্রেমিক, সমাজসেবক, রাজনীতিবিদ এবং লেখক। তার রচিত গ্রন্থাদি এক সময়ে ব্যাপক পরিচিতি ও স্বীকৃতি লাভ করলেও সুদীর্ঘ কর্মজীবনে সমাজসংস্কারক ও জননেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠার আড়ালে তার লেখক-পরিচিতি ঢাকা পড়ে। অশ্বিনীকুমার দত্তের রচনার মধ্যে তার উদার মানবতাবোধ, মানবপ্রেম এবং মানবসেবার সুস্পষ্ট বক্তব্য যুক্তিনিষ্ঠভাবে উপস্থাপিত হয়েছে।

আলোচকরা বলেন, অশ্বিনীকুমার দত্তের কর্মকাণ্ডের সবটাই বিস্তৃত ছিল বাংলাদেশের বরিশালকে কেন্দ্র করে। তার প্রতিষ্ঠিত ব্রজমোহন বিদ্যালয় এবং ব্রজমোহন কলেজ আজও দাঁড়িয়ে আছে শত বছরের ঐতিহ্য ধারণ করে।  

বইমেলায় ক্রেতার পাশাপাশি দর্শনার্থীরাও রয়েছেন-ছবি-শাকিল আহমেদ
সন্ধ্যায় একই মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী চন্দনা মজুমদার, সেলিম চৌধুরী ও কোহিনুর আকতার গোলাপী।  

আগামী বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) গ্রন্থমেলার সপ্তম দিন মেলা চলবে বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে কবি আবদুল গফ্ফার দত্ত চৌধুরী শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৮
এইচএমএস/আরআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa