bangla news

রাজশাহীকে হারিয়ে বিপিএলের স্বপ্নের ফাইনালে খুলনা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৩ ১০:৫২:০৪ পিএম
ছবিটিই বলে দিচ্ছে ম্যাচের ফলাফল। ছবি: শোয়েব মিথুন

ছবিটিই বলে দিচ্ছে ম্যাচের ফলাফল। ছবি: শোয়েব মিথুন

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ফাইনালে উঠেছে খুলনা টাইগার্স।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালসকে ২৭ রানে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে খুলনা।

এই ম্যাচে খুলনার মোহাম্মদ আমির ৬ উইকেট নিয়ে বিপিএলের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডটা নিজের করে নেন। রাজশাহী ফাইনালে ওঠার আরও একটি সুযোগ পাবে। সেক্ষেত্রে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে হারাতে হবে তাদের।

মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে নাজমুল হোসেন শান্তর অর্ধ-শতকে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৫৯ রান করে খুলনা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে ১৩১ রানে অলআউট হয়ে যায় রাজশাহী।

মোহাম্মদ আমির। ছবি: শোয়েব মিথুন

১৬০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই মোহাম্মদ আমিরের বোলিং তোপের মুখে পড়ে রাজশাহীর ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ওভারেই ফর্মে থাকা লিটন দাসকে বোল্ড করে সাজঘরে পাঠান আমির। এরপর আফিফ হোসাইন (১১), অলোক কাপালি (০) ও আন্দ্রে রাসেলকেও (০) প্যাভিলিয়নের পথ দেখান এই বাঁহাতি পেসার। মাঝে রবি বোপারা (১) ফ্রাইলিংকের বলে আউট হলে ২৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় রাজশাহী। এরপর ফরহাদ রেজা ৩ রান করে আউট হলে ৩৩ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যায় দলটি। ৩৯ বলে অর্ধ-শতক তুলে নেন শোয়েব মালিক। তবে ততক্ষণে জয়ের আশা শেষ হয়ে যায় রাজশাহীর।

সপ্তম উইকেটে ৭৪ রান যোগ করেন শোয়েব ও তাইজুল। দলীয় ১০৭ রানে তাইজুলকে ফিরিয়ে নিজের পঞ্চম উইকেট তুলে নেন আমির। এরপর শোয়েব মালিককে ৮০ রানে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়ে ষষ্ঠ উইকেট তুলে নিয়ে বিপিএলের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডটা নিজের করে নেন এই পাকিস্তানি পেসার।

শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ১৩১ রানে অলআউট হয় রাজশাহী। আমির ১৭ রান খরচ করে ৬ উইকেট নেন। এছাড়া মেহেদি হাসান মিরাজ ২টি এবং ফ্রাইলিংক ও শহিদুল ১টি করে উইকেট নেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৫ রানে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় খুলনা। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৭৮ রান যোগ করে সেই চাপ ভালোভাবেই সামল দেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও শামসুর রহমান শুভ। ব্যক্তিগত ৩২ রান করে দলীয় ৯৩ রানের মাথায় আউট হন শুভ।

অর্ধ-শতক তুলে নেন শান্ত। মুশফিকুর রহিম (২১) ও নাজিবুল্লাহ জাদরান (১২) শান্তকে সঙ্গ দিলে ৩ উইকেটে ১৫৯ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে খুলনা। শান্ত ৫৭ বলে ৭৮ রান করে আপরাজিত ছিলেন। রাজশাহীর মোহাম্মদ ইরফান ২টি এবং বোপারা ১টি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন মোহাম্মদ আমির।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে রাজশাহী রয়্যালস।

বাংলাদেশ সময়: ২২৫১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
আরএআর/এইচএডি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-13 22:52:04