ঢাকা, রবিবার, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ জুলাই ২০২১, ১৪ জিলহজ ১৪৪২

বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯

মোস্তাফিজকে নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন বাশার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
মোস্তাফিজকে নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন বাশার বোলিংয়ে মোস্তাফিজ: ফাইল ফটো

মোস্তাফিজুর রহমান। মাত্র ২০ বছর বয়সেই বল হাতে যিনি বাংলাদেশের লাখো ক্রিকেট সমর্থকদের নয়নের মণি হয়ে ওঠেছিলেন। বোলিংয়ে দুর্দান্ত কাটারের জন্য ‘কাটার মাস্টার’ তকমাও তার গায়ে সেঁটে আছে। কিন্তু সময় খুবই বেখেয়ালি। মাত্র চার বছর গত না হতেই হঠাৎ কোথায় হারালো মোস্তাফিজের সেই পুরনো ধার! ব্যাটসম্যানকে ছিন্নভিন্ন করে দেওয়া সেই ইয়র্কার!

যতোই দিন গড়াচ্ছে ‘ফিজ’ যেন অসাধারণ থেকে সাধারণের মানে চলে আসছেন। গত এক বছর বোলিংয়ে তার রুদ্ররূপ দেখেনি প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যান।

অথচ ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর ক্রিকেট পাগল বাংলাদেশকে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন তিনি। ঘুচিয়ে দিয়েছিলেন একজন সত্যিকারের পেসারের অভাব।

শুরুর পর সময়টাও দুর্দান্ত কেটেছে তার। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে বছর না ঘুরতেই ডাক পান আইপিএলে। সেখানেও সফলতা ধরে রেখে দেশের নাম উজ্জ্বল করেন। তারপরের সময়টা বেশ হতাশাজনক। গত এক বছর ফর্মহীনতায় ধুঁকতে হচ্ছে মোস্তাফিজকে। দেশের সেরা একজন পেসারকে হঠাৎ এমন সাধারণ পারফর্ম্যান্সে দেখা দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য সত্যি হতাশাজনক।

চলমান বিপিএলে আশা করা গিয়েছিল, নিজের ছায়া থেকে বেরিয়ে আসবেন মোস্তাফিজ। কিন্তু তা আর হলে কই! বিপিএলের প্রথম দিন দ্বিতীয় ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে বোলিংয়ে এসে প্রথম দুই ওভার বেশ ভাল ডেলিভারি দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ডেথ ওভারে গিয়ে ভুলে গেলেন বল করাটা। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের শ্রীলংকান অধিনায়ক দানুস শানাকা তার এক ওভারেই মারলেন ৪ ছক্কা। এই এক ওভারের কারণে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় রংপুর।  

ভারত সফরেও নিজের খাপ থেকে পুরনো তরবারিটা বের করতে পারেননি তিনি। টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে মোস্তাফিজকে কাটাতে হয়েছে একটি উইকেটও না পেয়ে। সিরিজে মোট ৯.৪ ওভার বল করে ৯.৫১ ইকোনমি রেটে দিয়েছেন ৯২ রান।  

কেবল ভারত সফরে নয়, ফর্মের জন্য ধুঁকতে থাকা মোস্তাফিজ গত ১০ টি-টোয়েন্টিতে ৩৩.৪ ওভার বল করে পেয়েছেন মাত্র ৯ উইকেট। আর এই কয়েকটি উইকেট নিতে ৯.৩৫ ইকোনেমি রেটে ৩১৫ রান খরচ করেছেন ২৪ বছর বয়সী পেসার। যা তার নামের সঙ্গে কোনোভাবেই সামঞ্জস্য নয়।  

মোস্তাফিজের হঠাৎ এমন ফর্মহীনতা দুশ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে।  বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) নির্বাচক হাবিবুল বাশার বেশ উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেছেন তাকে নিয়ে। মোস্তাফিজ যেভাবে প্রেডিক্টেবল হয়ে ওঠছেন তাতে একপ্রকার হাতজোড় করে বাশার মিনতি করেছেন ফিজকে পুরনো ছন্দে ফেরার জন্য নতুন কিছু ভাবতে।

বাশার জানান, মোস্তাফিজ তার আয়ত্ত্বে থাকা দৃঢ় মুষ্টির ইয়র্কার হারিয়ে ফেলেছেন। শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে রিপোর্টারদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা উদ্বিগ্নতার কারণ গত এক বছর ধরে আমরা মোস্তাফিজকে মিস করছি। আগে তার হাতে যেমন চমৎকার ইয়র্কার ছিল এখন তার বোলিংয়ে তা পাচ্ছি না। ’ 

বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক বলেন, ‘তার এখনো স্লোয়ার ডেভিভারিগুলো আছে। এখন সে ভাল বলও করছে কিন্তু ইয়র্কার নেই। সে প্রেডিক্টেবল হয়ে ওঠছে। এটাতেই আমার উদ্বিগ্নতা। সে কি করতে যাচ্ছে তা আগে থেকেই ব্যাটসম্যানরা বুঝে ফেলছে। ’ 

মোস্তাফিজের সমস্যা আলোচনার পাশাপাশি সমধানের একটা উপায়ও বলে দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক। তিনি জানান, বাঁ-হাতি পেসারের জন্য এটিই সঠিক সময় ড্রইং বোর্ডে ফিরে যাওয়া এবং সমস্যা সমাধান করে কামব্যাকের পরিকল্পনা করা। বাশার বলেন, ‘আমি মনে করি বোলিং নিয়ে তার এখন পুনরায় চিন্তা করা উচিৎ। ব্যাটসম্যানরা তাকে সহজভাবে পড়ে ফেলার আগে তার এখনই সঠিক সময় প্ল্যান বি-এর দিকে যাওয়া। ’ 

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
ইউবি  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa