ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

বিএনপি

নাসিকে ছুটছে কেন্দ্রীয় বিএনপি

আসাদ জামান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫৪৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬
নাসিকে ছুটছে কেন্দ্রীয় বিএনপি ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে দল মনোনীত মেয়র প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালাতে নারায়ণগঞ্জ অভিমুখে বইছে বিএনপি নেতাদের স্রোত।

নারায়ণগঞ্জ থেকে ফিরে: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে দল মনোনীত মেয়র প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালাতে নারায়ণগঞ্জ অভিমুখে বইছে বিএনপি নেতাদের স্রোত। প্রতিদিন কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতারা ঢাকা থেকে গিয়ে নারায়ণগঞ্জে প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগ চালাচ্ছেন।


 
গত ৬ ডিসেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়। এর চারদিন পর ১০ ডিসেম্বর থেকে বিএনপি, বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন এবং বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট নেতারা ঢাকা থেকে গিয়ে নারায়ণগঞ্জে প্রচার-প্রচারণা শুরু করেন।
 
বিএনপি নেতাদের প্রচার-প্রচারণার চতুর্থ দিন মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) দ্বিতীয় দফায় নারায়ণগঞ্জ যান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
 
এদিন দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বন্দর থানার বিভিন্ন এলাকায় ২০ দলীয় জোট নেতাদের সঙ্গে নিয়ে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগ চালান তিনি।
 
জোট শরিক জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মহাসচিব ও ২০ দলীয় জোটের প্রচার-প্রচারণা সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক মোস্তফা জামাল হায়দার, সদস্য সচিব বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, এনপিপির চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মওলানা আব্দুল করিম, এলডিপির মহাসচিব ডা. রেদোয়ান আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, বিজেপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আব্দুল মতিন সাউদ, জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুতফর রহমান, কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান, মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মঞ্জুর হোসেন ইসা, ডিএল সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, পিপলস লীগের মহাসচিব আবুল অ্যাডভোকেট সৈয়দ মাববুব হোসেন, ইসলামিক পার্টির মহাসচিব আবুল কাশেম, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মহাসচিব মুফতি মুহিউদ্দিন একরামকে নিয়ে বন্দর থানার বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
 
একই টিম নিয়ে গত ১০ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালান তিনি। এই টিম নিয়ে আগামী ১৭ ডিসেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় গণসংযোগ করবেন বিএনপির মহাসচিব।
 
দল মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বিএনপির অঙ্গ সংগঠনগুলোও যার যার অবস্থান থেকে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। বিএনপির অন্যতম অঙ্গ সংগঠন জাতীয়তাবাদী যুবদল সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগের জন্য ১৪টি টিম গঠন করেছে।
 
মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে যুবদলের একটি টিম নারায়ণগঞ্জ শহরে ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগ চালান।
 
কেন্দ্রীয় যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ক ম মোজ্জামেল হোসেন, সহ সম্পাদক দ্বীন মোহাম্মদ, নির্বাহী সদস্য এইচ এম সাইফ আলী খান, অ্যাডভোকেট মাহাতাব আলমসহ স্থানীয় যুবদল নেতারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ধানের শীষ মার্কায় ভোট চান।
 
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদের নেতৃত্বে আরও কয়েকটি দল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় সাখাওয়াত হোসেন খানের পক্ষে গণসংযোগ করেন।
 
এছাড়া সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য মঙ্গলবার (১৩ ডিস্বের) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ যান নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের প্রধান নির্বাচনী সমন্বয়ক বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বরচন্দ্র রায়।
 
বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) সকালে কেন্দ্রীয় বিএনপির বেশ কয়েকটি দল ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ গেছেন ধানের শীষের পক্ষে গণসংযোগের জন্য। বিকেলে আরও কয়েকটি দল নারায়ণগঞ্জ যাবেন বলে জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।
 
দলীয় সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে জনপ্রিয়তা, জনসমর্থন, নেতাদের আনুগত্য ও সাংগঠনিক শক্তি যাচাইয়ের ক্ষেত্র হিসেবে নিয়েছেন বিএনপির হাইকমান্ড। আবার নেতা-কর্মীরাও দল ও দলের চেয়ারপারসনের প্রতি আনুগত্য প্রকাশের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে নিয়েছেন নাসিক নির্বাচনকে। সে কারণে নানা প্রতিকূলতা শর্তেও নিজেদের জান-মাল নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন নাসিক নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে।
 
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাংলানিউজকে বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় নির্ধারণ হবে জনগণের ভোটে। কিন্তু তার আগে আমাদের মিশন ছিল সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা- সেটি আমরা করতে পেরেছি বোধ হয়। পরিস্থিতি ভালো থাকলে সামনের দিনগুলো এ ধারা অব্যাহত থাকবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১১২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬
এজেড/এএ

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa