bangla news

প্রধানমন্ত্রী চাইলে দায়িত্ব ছেড়ে দেবো: বিমান চেয়ারম্যান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১০-০৯-১৫ ৭:৫২:৫৩ এএম

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত এয়ার মার্শাল জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে তিনি দায়িত্ব ছেড়ে দেবেন।

ঢাকা: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত এয়ার মার্শাল জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে তিনি তার দায়িত্ব ছেড়ে দেবেন।

সম্প্রতি বিমান চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দাপ্তরিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দেওয়া চিঠি প্রসঙ্গে বাংলানিউজের কাছে এক প্রতিক্রিয়ায় বুধবার তিনি একথা বলেন।

জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিমানমন্ত্রী জিএম কাদেরের সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক। অথচ তিনি বিভিন্ন অভিযোগ এনে আমাকে একাধিক চিঠি দিয়েছেন। এসবের জবাবও আমি দিয়েছি। এরপরেও কেন তিনি আবারো প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছেন! আসলে জানি না তিনি কেন আমার বিরুদ্ধে এগুলো করছেন।’

প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিঠি পাঠানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘চিঠি পাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী কী করবেন সেটি পুরোপুরি তার ব্যাপার। তবে প্রধানমন্ত্রী চাইলে আমি দায়িত্ব ছেড়ে দিতে প্রস্তুত।’

গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন জানিয়ে বিমানের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছি। উনি সব কথা শুনেছেন।’

গত ১৮ জুলাই ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের এক সেমিনারে বিমানমন্ত্রী প্রথমবারের মতো অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে বিমানের কর্তা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে খোলামেলা বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেছিলেন, বিমানে কোনো জবাবদিহিতা নেই। এক শ্রেণীর লোক বিমানকে চুষে খাচ্ছে।

এরপর এসব বক্তব্য দেওয়ার এখতিয়ার বিমানমন্ত্রীর আছে কিনা- এ প্রশ্ন তুলে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন বিমান চেয়ারম্যান। সেখানে তিনি মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এবং মন্ত্রী ও সচিবের দ্বন্দ্ব নিয়ে কথা বলেন।

এর পর থেকেই মন্ত্রী ও বিমান চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসে।  

এ বিষয়ে জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমার সঙ্গে কখনোই বিমানমন্ত্রীর সম্পর্ক খারাপ ছিলো না। বিমানে কখন কি হচ্ছে তা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা যেমন মন্ত্রীকে অবহিত করেছেন, তেমনি আমিও তাকে জানিয়েছি। মন্ত্রণালয়ের সচিবও বিমানের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত। এরপরেও মন্ত্রী বিমান সম্পর্কে যেসব কথা বলেছেন তা সত্যিই অনাকাক্ঙ্ক্ষিত ছিল।’

তিনি বলেন, ‘মন্ত্রীর এ বক্তব্য প্রসঙ্গে কথা বলাতেই তিনি আমাকে চিঠি দিয়েছেন। আমিও জবাব দিয়েছি। তারপরেও তিনি আমার পিছু ছাড়ছেন না। এবার তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছেও চিঠি দিয়েছেন। আসলে বুঝতে পারছি না তিনি আমার ওপর এমনভাবে ক্ষেপলেন কেন?’

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১০

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-08-25 05:05:08 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান