bangla news

‘খালেদাকে মুক্ত করে সার্বভৌমত্ব ফিরিয়ে আনার শপথ’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০৪-২১ ১:১১:৫০ পিএম
‘খালেদাকে মুক্ত করে সার্বভৌমত্ব ফিরিয়ে আনার শপথ’
বক্তব্য রাখছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, বর্তমানে দেশে যে পরিস্থিতি চলছে, তাতে প্রমাণ হয়, দেশে ন্যূনতম আইনের শাসন নেই। আইনের শাসন থাকলে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অবশ্যই মুক্তি পেতেন, তাকে যে মামলায় কারাগারে আটক রাখা হয়েছে, শিক্ষানবিশ আইনজীবীরাও জানে, এ মামলা জামিনযোগ্য।

রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ১২টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলের নেতাদের মুক্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, গত নির্বাচনে সরকার দিনের আলোতে যেমন অপকর্ম করেছে, আবার রাতের অন্ধকারেও করেছে। নির্বাচন কমিশন, প্রশাসন ও পুলিশ মিলে যে অপকর্ম করেছে, এই অপকর্ম মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লণ্ঠিত করেছে।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, আমাদের শপথ হচ্ছে, মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশকে স্বাধীন করেছি, আমরা যেকোনো মূল্যে এর সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবো। খালেদা জিয়া মুক্তি পেলে এদেশের মানুষ মুক্তি পাবে। তিনি দেশের সার্বভৌমত্বের প্রতীক। আমরা যেকোনো মূল্যে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো। বাংলার মানুষ জেগে উঠলে অবৈধ শাসকদের সবকিছু তছনছ করে দেবে। তাই এ মাসে শপথ করি, সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব ফিরিয়ে আনবো।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, খালেদা জিয়াসহ সবার মুক্তি রাজনৈতিক লড়াই, এ লড়াই চলছে। খালেদা জিয়ার মুক্তি হলে জনগণের মুক্তি হবে। তিনি মুক্তি পেলে স্বাধীনতার মূল্যবোধের জয় হবে। এ লড়াইয়ে জিততে হবে।

হত্যা ধর্ষণে উন্নয়নের নরপতিরা জড়িত অভিযোগ করে এই বিএনপি নেতা বলেন, বিমানবন্দরে আওয়ামী লীগ নেতারা গুলি ও অস্ত্র নিয়ে ধরা পড়ছে। ছয় বছরের শিশু থেকে শুরু করে মাদ্রাসা শিক্ষক ও মন্দিরের পুরোহিতরা ধর্ষণ করছে। এসব ধর্ষণে আওয়ামী লীগের কর্মীরা জড়িত। এদেশের মূল্যবোধ ধ্বংস করা হয়েছে।

হাবিব উন নবী খান সোহেল মুক্তি পরিষদের সভাপতি খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান খানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা আল পাগাহ খান, গোলাম মাওলা শাহিন ও আক্তারুল ইসলাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৯
টিএম/এএটি

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-06-25 04:56:47 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান