ঢাকা: ভ্রমণ করতে কার না ভালো লাগে, আর সেই ভ্রমণ যদি হয় দেশের সীমানা পেরিয়ে, তাহলে তো কথাই নেই। তাই ভ্রমণপিপাসুরা পর্যটন মেলা হলেই ছুটে আসেন।

">
bangla news

ছুটির দিনে পর্যটন মেলায় ভ্রমণপিপাসুদের ভিড়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০৪-১৯ ৬:৫৫:৩৩ পিএম
ছুটির দিনে পর্যটন মেলায় ভ্রমণপিপাসুদের ভিড়
পর্যটন মেলায় দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ছিলো ব্যাপক

ঢাকা: ভ্রমণ করতে কার না ভালো লাগে, আর সেই ভ্রমণ যদি হয় দেশের সীমানা পেরিয়ে, তাহলে তো কথাই নেই। তাই ভ্রমণপিপাসুরা পর্যটন মেলা হলেই ছুটে আসেন।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) পর্যটন মেলায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ভ্রমণে আগ্রহী লোকজনের ভিড় দেখা যায়।

মেলায় বিভিন্ন দেশের প্যাকেজ নিয়ে হাজির হয়েছে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এছাড়াও নিজ দেশের পর্যটনকে তুলে ধরতে কয়েকটি দেশের পর্যটন বোর্ডও অংশগ্রহণ করেছে। 

শুক্রবার দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে দেশের বৃহত্তম পর্যটন মেলা ‘বিমান বাংলাদেশ ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ফেয়ার’। মেলার আয়োজন করেছে ট্যুরিজম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (টোয়াব)। 

মেলায় বুকিং দেওয়াদের মধ্যে উজবেকিস্তান, চীন, ভিয়েতনাম, মধ্যপ্রাচ্য, তুরস্ক, মিশর এবং দক্ষিণ ও পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশই বেশি গন্তব্য দেখা গেলো বাংলাদেশি পর্যটকদের। আর তাই মেলায় আকর্ষণীয় অফার পেয়ে হাতছাড়া করছেন না ভ্রমণপিপাসুরা।

শুধু বিদেশ নয়, নিজ দেশের বিভিন্ন পর্যটন স্পটেরও প্যাকেজ নিয়ে এসেছে দেশীয় কিছু প্রতিষ্ঠান। বিভিন্ন আকর্ষণীয় অফারে প্যাকেজ হাতছাড়া করছেন না কেউ।

মেলায় ঘুরতে আসা নাদিয়া নাসরিন বলেন, চীন ভ্রমণে যাওয়ার খুব ইচ্ছে। ঘুরে দেখলাম দেশটির বিভিন্ন প্যাকেজ রয়েছে। তবে ঈদের ছুটির প্যাকেজে বুকিং দেবো।

সুজন সখি নামের আরেক দর্শনার্থী বলেন, আমি প্রথমে নিজের দেশটাকে ঘুরে দেখবো। পরে বিদেশে ভ্রমণ করতে যাবো।

ভিজিট নেপাল স্টলের এক্সিকিউটিভ প্রিয়াঙ্কা বলেন, হিমালয়কন্যা নেপাল অনিন্দ্য সুন্দর দেশ। আমরা বাংলাদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে কাজ করছি। 

এবারের মেলায় ভারত, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইনসহ বিভিন্ন দেশের জাতীয় পর্যটন সংস্থা, উজবেকিস্তানসহ দেশ-বিদেশের ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল অপারেটর, এয়ারলাইন সংস্থা, হোটেল এবং রিসোর্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ২২০টি স্টল রয়েছে। 

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। প্রবেশ মূল্য ৩০ টাকা। শনিবার (২০ এপ্রিল) রাত ৯টায় শেষ হবে আন্তর্জাতিক এ পর্যটন মেলা। 

উল্লেখ্য, ২০০৭ সাল থেকে প্রতিবছর পর্যটন মেলার আয়োজন করে আসছে টোয়াব।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯
টিএম/জেডএস

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-06-26 13:15:51 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান