কলকাতা: ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ চলছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) শুরু হওয়া দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে দেশটির ১১টি রাজ্যের ৯৫টি আসন এবং একটি কেন্দ্রীয় অঞ্চলের একটি আসনে। এরমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের তিনটি আসনও রয়েছে।

">
bangla news

দার্জিলিংসহ পশ্চিমবঙ্গের ৩ আসনে নির্বিঘ্নে চলছে ভোট

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০৪-১৮ ১:৫২:০৫ পিএম
দার্জিলিংসহ পশ্চিমবঙ্গের ৩ আসনে নির্বিঘ্নে চলছে ভোট
পশ্চিমবঙ্গের ৩ আসনে নির্বিঘ্নে চলছে ভোট। ছবি: সংগৃহীত

কলকাতা: ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ চলছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) শুরু হওয়া দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে দেশটির ১১টি রাজ্যের ৯৫টি আসন এবং একটি কেন্দ্রীয় অঞ্চলের একটি আসনে। এরমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের তিনটি আসনও রয়েছে।

দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে ভোট হচ্ছে পর্যটনের জেলা দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি এবং রায়গঞ্জ আসনে। তিনটি আসনের জন্যই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে নির্বাচন কমিশন।এ তিনটি আসনে নিরাপত্তার জন্য দ্বিগুণ করা হয়েছে আধা-সামরিক বাহিনী।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গের পাহাড়ি অঞ্চল দার্জিলিংয়ে ভোট দেবেন প্রায় ১৬ লাখ ভোটার। অন্যদিকে জলপাইগুড়িতে ভোট দেবেন ১৭ লাখ এবং রায়গঞ্জে ভোট দেবেন ১৬ লাখ ভোটার।

প্রাপ্ত হিসাব অনুযায়ী, এ তিনটি লোকসভা আসনে গড়ে আধা-সামরিক বাহিনীর এক হাজার জওয়ান নিয়োজিত রয়েছেন।

বিগত কিছু নির্বাচনে দার্জিলিংয়ে উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। এরই জেরে নেওয়া হয়েছে বাড়তি সতর্কতা।

এ রাজ্যের তিনটি আসনেই ত্রিমুখী লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। এর মধ্যে রায়গঞ্জ লোকসভা আসনটি বামেদের দখলে রয়েছে। যদিও ২০১৪ সালের আগে পর্যন্ত এটি কংগ্রেসের ‘ঘাঁটি’ বলেই পরিচিত ছিল। কিন্তু এ বছর সেখানে কংগ্রেস এবং সিপি(আই)এমের সঙ্গে লড়াইয়ের ময়দানে আছে বিজেপিও। এই আসনেই তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে প্রচার করে সমালোচনার মুখে পড়েন বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌস।

অন্যদিকে, জলপাইগুড়ি লোকসভা আসনটি বামেদের দুর্গ বলে প্রচলিত থাকলেও ২০১৪ সালে সেটির দখল নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এ আসনে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল গত নির্বাচনের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে পারে কি-না সেটিই দেখার বিষয়।

তবে দার্জিলিংয়ের আসনটি একদমই আলাদা। ‘গোর্খাল্যান্ড’র দাবি এবং সে দাবিকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতি সব সময় এই অঞ্চলের ভোটকে প্রভাবিত করেছে। ফলে বারেবারে হাত বদল হয়েছে এই আসনের। 

২০০৪ সালের আগে এই আসনটি ছিল বামেদের দখলে। ২০০৪ সালে এসে এটি যায় কংগ্রেসের দখলে। অন্যদিকে ২০০৯ সালে আসনটির দখল চলে যায় বিজেপির হাতে। একইভাবে ২০১৪ সালেও ভোটাররা বিজেপিকেই বেছে নিয়েছিলেন।

তবে এই বছরে দার্জিলিং আসনের ভোটারদের নজরে যতটা বেশি রয়েছে ‘গোর্খাল্যান্ড’ ইস্যু, তার থেকে বেশি রয়েছে উন্নয়নের প্রশ্ন। এখন দার্জিলিংয়ের ভোটাররা উন্নয়নের প্রশ্নে কোন দলকে নির্বাচিত করবে তাই দেখার অপেক্ষা।

পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও তামিলনাড়ু, আসাম, মহারাষ্ট্র, উত্তর প্রদেশ, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক, উড়িষ্যা, কাশ্মীর, মনিপুর, পড়ুচেরীর বিভিন্ন আসনে দ্বিতীয় দফার নির্বাচন হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার লোকসভার দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে মোট ৯৭ টি আসনে ভোটগ্রহণের কথা ছিল। তবে তামিলনাড়ুর ভেলোর আসনে অনিয়মের খবরে সেখানে নির্বাচন স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এখন নির্বাচন চলছে ৯৬ আসনে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০১৯
এসএ/এইচএ/

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-06-24 10:31:47 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান