ময়মনসিংহ: সবজির বাজারের কোনো মতিগতি নেই। আমদানি বেশি হলে দাম কমে আর আমদানি না থাকলে দাম চড়া হয়ে যায় এমনভাবেই বলছিলেন ময়মনসিংহের নগরের সানকিপাড়ার সবজি বিক্রেতা আবির হোসেন (৩২)।

">
bangla news

ময়মনসিংহে মাছের বাজার চড়া

এম আব্দুল্লাহ আল মামুন খান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০১-১১ ৩:২৭:০৫ পিএম
ময়মনসিংহে মাছের বাজার চড়া
মাছ কাটতে ব্যস্ত বিক্রেতা। ছবি: অনিক খান

ময়মনসিংহ: সবজির বাজারের কোনো মতিগতি নেই। আমদানি বেশি হলে দাম কমে আর আমদানি না থাকলে দাম চড়া হয়ে যায় এমনভাবেই বলছিলেন ময়মনসিংহের নগরের সানকিপাড়ার সবজি বিক্রেতা আবির হোসেন (৩২)।

তিনি বলেন, খুচরা বাজারে নির্বাচনের পরের দিন ‘প্রতিকেজি ১৫ থেকে ২০ টাকার শিম ৬০ থেকে ৭০ টাকা কেজিতেও বিক্রি করেছি। সময় বুঝে চড়া দাম দিতেই হবে।’ 

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ময়মনসিংহের সবজির বাজার ঘুরে দেখা যায় প্রতিকেজি টমেটো ৩০ টাকা, শশা ৩০ টাকা, বেগুন ১৫ থেকে ২০ টাকা, বাঁধাকপি প্রতি পিস ১৫ থেকে ২০ টাকা, ফুলকপি ১৫ থেকে ২০টাকা, প্রতিকেজি শিম ১৫ থেকে ২০টাকা, মরিচ ৪০ থেকে ৬০ টাকা , দেশি আলু ৩০ টাকা, হল্যান্ডের আলু ২০ থেকে ২৫ ও পেঁপে ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে। 

গত সপ্তাহে টমেটো প্রতিকেজি ২২ থেকে ২৫ টাকা, শশা ২০ থেকে ১৫ টাকা, বেগুন ও শিম ১৫ থেকে ২০ টাকা (অপরিবর্তিত), মরিচ ৩৫ টাকা, আলু (দেশি) ৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

বাজারে সবজি কিনতে আসা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আব্দুস সোবহান জানান, একেক বাজারে বিক্রেতারা একেক রকম দাম চান। তবে প্রতি বাজারেই গত সপ্তাহের তুলনায় সবজির দাম অনেক চড়া। এভাবে চলতে থাকলে সবজি খাওয়াই ছাড়তে হবে। 

নগরের সানকিপাড়া রেলক্রসিং বাজারের মাছ বিক্রেতা অকুল হোসেন জানান, গত সপ্তাহে সাড়ে ৩ কেজি ওজনের কাতল বিক্রি হয়েছে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা কেজি। এখন সেই কাতল প্রতিকেজিতে দাম বেড়েছে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা।
সবজি বিক্রিতে ব্যস্ত বিক্রেতা। ছবি: অনিক খানচার কেজি ওজনের বড় রুই প্রতিকেজি গত সপ্তাহে ২৮০ থেকে ৩০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এখন প্রতি কেজি সাড়ে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ৪০০ টাকার গলদা চিংড়ি সাড়ে ৪০০ টাকায় প্রতিকেজি, ১ হাজার টাকার বড় ইলিশের দাম কেজিতে বেড়েছে ২০০ টাকা। 

নগরের নতুন বাজারের মাছ বিক্রেতা ইনসান মিয়া জানান, চার কেজি ওজনের চিতলের দাম প্রতিকেজি ৭৫০ টাকা। গত সপ্তাহে ছিল সাড়ে ৬০০ টাকা, গুলশা টেংড়া আগে ছিল সাড়ে ৪০০ এখন ৬০০ টাকা কেজি, সাড়ে ৩ কেজি ওজনের কালি বাউশ  আগে ছিল সাড়ে ৩০০ এখন ৪০০ টাকা, ৫০০ গ্রামের ইলিশ সাড়ে ৩০০ টাকা কেজি, আগে দাম ছিল ৩০০ টাকা, চার কেজি ওজনের কাতল সাড়ে ৩০০ টাকা থেকে দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকা কেজি। 

নগরের মেছুয়া বাজারে মাংস কিনতে আসা আশিকুর রহমান নামে এক ব্যবসায়ী জানান, গত সপ্তাহে গরুর মাংস কিনেছিলেন ৪৬০ টাকা কেজি। এবার প্রতিকেজিতে ২০ টাকা বেড়েছে। খাসির মাংসের স্বাদ নেওয়ার আর কোনো উপায় নেই। ৬৮০ টাকা কেজির খাসির মাংসের দাম ৭৫০ টাকা। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০১৯ 
এমএএএম/আরআইএস/

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-04-24 01:06:28 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান