ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ শাবান ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

ইউএস-বাংলায় প্রথম বোয়িং যুক্ত হচ্ছে মঙ্গলবার

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১০, ২০১৬
ইউএস-বাংলায় প্রথম বোয়িং যুক্ত হচ্ছে মঙ্গলবার ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: অগ্রসরমান এয়ারলাইন্স ‘ইউএস-বাংলা’য় প্রথম বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট যুক্ত হচ্ছে মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর)। এই এয়ারক্রাফট ‍যুক্ত হওয়ায় এয়ারলাইন্সটির আরও বেশি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন সহজ হবে।

 

মঙ্গলবার দুপুর ২টায় ঢাকার হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১৫৮ আসনবিশিষ্ট বোয়িং ৭৩৭-৮০০ অবতরণ করার মধ্য দিয়ে দিগন্তজয়ে নাম লেখাবে ইউএস-বাংলা। সোমবার (১০ অক্টোবর) এয়ারলাইন্সটির ডিজিএম (মার্কেটিং সাপোর্ট অ্যান্ড পিআর) মো. কামরুল ইসলামের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এরইমধ্যে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক রুটে অভিষেক ঘটেছে ইউএস-বাংলার। নতুন যুক্ত হতে চলা এই এয়ারক্রাফটের ১৫৮ আসনের মধ্যে রয়েছে ৮টি বিজনেস ক্লাস, প্রিমিয়াম ইকোনমি ও ইকোনমি ক্লাস।

২০১৪ সালের ১৭ জুলাই দ্রুতগতি সম্পন্ন ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে বাংলাদেশের আকাশপথে যাত্রা করে ইউএস-বাংলা। বর্তমানে ৭৬ আসনবিশিষ্ট তিনটি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। দু’বছরের অধিক সময়ে তারা ঢাকা-কাঠমান্ডু-ঢাকা রুট ও অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন রুট মিলিয়ে প্রায় ষোল হাজারের অধিক ফ্লাইট সফলভাবে পরিচালনা করেছে।  

‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা আন্তর্জাতিক রুট সম্প্রসারণের লক্ষ্যে চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে এবং চলতি বছরের ডিসেম্বরে মধ্যে আরও দু’টি নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত করার পরিকল্পনা করছে। এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফটগুলো দিয়ে কলকাতা, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, সিঙ্গাপুর, মাস্কাট, দোহা, গুয়াংজুসহ বিভিন্ন রুটে ফ্লাইট পরিচালনা হবে। এছাড়া শিগগির ঢাকা-পারো-ঢাকা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ারলাইন্সটি।

গত দুই বছরে সফলতার স্বীকৃতিস্বরূপ ইউএস-বাংলা ট্রাভেল বিষয়ক পত্রিকা ‘দ্য বাংলাদেশ মনিটর’ কর্তৃক ডমেস্টিক সেক্টরে ‘বেস্ট এয়ারলাইন অব দ্য ইয়ার-২০১৫’ অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছে।  

যাত্রা শুরুর পর থেকে অন-টাইম ফ্লাইট অপারেশন, আন্তর্জাতিক মানের কেবিন সার্ভিস, উন্নত মানের নিজস্ব ক্যাটারিং সার্ভিস যা যাত্রী সাধারণের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন্স হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে ইউএস-বাংলা। এয়ারলাইন্সটির সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড শতকরা ৯৮.৭ ভাগ।  

আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে ইউএস-বাংলায়, যার মধ্যে রয়েছে ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লাইয়ার প্রোগ্রাম ‘স্কাই স্টার’ সহ অনেক সেবাধর্মী ও সময়োপযোগী সার্ভিস।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১০, ২০১৬
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।