ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

এভিয়াট্যুর

পর্যটন হতে পারে আয়ের দ্বিতীয় খাত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০১ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৪
পর্যটন হতে পারে আয়ের দ্বিতীয় খাত ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: উদ্যোগ নিতে পারলে তৈরি পোশাক খাতের পর পর্যটন শিল্প থেকে সবচেয়ে বেশি আয় করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।    

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ট্যুরিজম ফেলোশিপ-২০১৪ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ সব কথা বলেন।



এভিয়েশন ও ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের (এটিজেএফবি) আহ্বায়ক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।  

মন্ত্রী পর্যটনের বিকাশে বাংলাদেশকে আরো ইতিবাচকভাবে তুলে ধরতে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান।  

রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশের পর্যটন সেইভাবে বিকাশ লাভ করতে পারছে না। বিদেশি পর্যটকদের আকর্ষণে তেমন কোনো উদ্যোগ নিতে পারেনি। পর্যটন বিষয়ও তুলে ধরতে পারেনি।

তিনি বলেন, রমজানকে পর্যটক আকর্ষণে আমরা ব্যবহার করতে পারি। কিন্তু, এগুলো করা যাচ্ছে না।


এদিকে, পর্যটন শিল্পের ওপর প্রতিবেদন করার জন্য ১০ জন সাংবাদিককে ফেলোশিপ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে ফেলোশিপ পাওয়া সাংবাদিকদের হাতে সনদ ও চেক তুলে দেন পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।  

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব খোরশেদ আলম চৌধুরী, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সিইও আখতারুজ জামান খান কবির, পর্যটন বিষয়ক পাক্ষিক বাংলাদেশ মনিটরের সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলম, এটিজেএফবি’র তানজিম আনোয়ার।   

খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন, পেশার বাইরেও পর্যটনের প্রতি ভালোবাসা থাকতে হবে। তাহলেই এ খাতের উন্নতি হবে।    

আখতারুজ জামান খান কবির বলেন, এসব প্রতিবেদনের মাধ্যমে উঠে আসা সমস্যাগুলো নীতি-নির্ধারণে সাহায্য করবে।   
 
কাজী ওয়াহিদুল আলম বলেন, এ ধরনের ফেলোশিপ গণমাধ্যম কর্মীদের উৎসাহিত করবে; যা পর্যটনকে খাতকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১১৫২ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa