ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

আইকাও-ডিজিসিএ সম্মেলন শুরু ১৫ অক্টোবর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০২৩
আইকাও-ডিজিসিএ সম্মেলন শুরু ১৫ অক্টোবর

ঢাকা: ৩৮ বছর পর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (আইকাও) এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সিভিল এভিয়েশন প্রধানদের (ডিজিসিএ) সম্মেলন। আগামী ১৫-১৯ অক্টোবর ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলে আইকাও-এপেকের ৫৮তম এই সম্মেলনে প্রায় ৪৭টি দেশ এবং ১৩টি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিসহ ৫০০ জন বিদেশি ডেলিগেট অংশ নেবেন।

বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান পাঁচ দিনের এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন। বুধবার (১১ অক্টোবর) বেবিচক থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বেবিচক জানায়, পাঁচ দিনের এ আসরটি বাংলাদেশ দ্বিতীয় বারের মতো আয়োজন করতে যাচ্ছে। আইকাও-এর ত্রি-বার্ষিক সাধারণ সভার পর এটিই আঞ্চলিক পর্যায়ে সবচেয়ে বড় আয়োজন। এ সম্মেলনটি ১৯৮৫ সালে বাংলাদেশে প্রথম আয়োজন করা হয়েছিল।

বেবিচকের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দিক নির্দেশনায় ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ আইকাও সদস্য পদ লাভ করে। যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশের সূচনালগ্নেই তিনি বুঝতে পেরেছিলেন বিভিন্ন দেশের সঙ্গে জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ ছাড়া সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণ হবে না। তাই তিনি বাংলাদেশকে একটি এভিয়েশন হাব হিসাবে পরিণত করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তার দেখানো পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় দেশের প্রতিটি বিমানবন্দরে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ চলছে।

বেবিচক চেয়ারম্যান বলেন, আইকাও-এর সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর পূর্তির এ সময়ে দ্বিতীয় বারের মতো এ সম্মেলন আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত ও গর্বিত। করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক অস্থিতিশীল অবস্থা এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রেক্ষাপটে ডিজিসিএ‘র ৫৮তম কনফারেন্সটি এয়ার নেভিগেশন তথা এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রির জন্য বিশেষ গুরুত্ব বহন করে।

২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হলে এভিয়েশন খাতেরও উন্নয়ন প্রয়োজন।

জানা গেছে, সম্মেলনে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর মহাপরিচালকরা অংশগ্রহণ করবেন। এছাড়া আইকাও-এর সভাপতি সালভাতোর সাকিতানো, মহাসচিব হুয়ান কার্লোস সালাজার, আঞ্চলিক পরিচালক তাও মা  সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন। সম্মেলনে দক্ষিণ আফ্রিকা সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান, সৌদি সিভিল এভিয়েশন অথরিটি এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের জেনারেল সিভিল এভিয়েশন অথরিটির প্রতিনিধি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ও ট্রান্সপোর্ট অথরিটির ২০ জন সদস্যের একটি দল অংশগ্রহণ করবেন।

সম্মেলনে এভিয়েশন খাতে এভিয়েশন সেফটি, এয়ার নেভিগেশন, এভিয়েশন সিকিউরিটি, ফেসিলিটেশন, এয়ার ট্রান্সপোর্টসমূহের উন্নয়ন, পরিবেশ বিপর্যয় রোধ, এভিয়েশন খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও প্রায়োগিক দিক ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করা হবে এবং সুপারিশমালা প্রণয়ন করা হবে। সেখানে উত্থাপিত সুপারিশমালা পরবর্তী আইকাও-এর সাধারণ সভায় উত্থাপিত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২২৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০২৩
এমকে/এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।