ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

যাত্রীকে যৌন হয়রানি, বিমানের কেবিন ক্রু বরখাস্ত

মাছুম কামাল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৩ ঘণ্টা, জুলাই ২৫, ২০২৩
যাত্রীকে যৌন হয়রানি, বিমানের কেবিন ক্রু বরখাস্ত

ঢাকা: সমালোচনা এবং বিতর্কিত কর্মকাণ্ড পিছু ছাড়ছে না রাষ্ট্রায়ত্ত উড়োজাহাজ সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের। এবার বিমানের ফ্লাইটে এক কেবিন ক্রু বিজনেস ক্লাসের এক নারী যাত্রীকে যৌন হয়রানি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত ক্রুকে সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

বিমানের একটি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।  

এ ঘটনায় অভিযুক্ত ক্রুর নাম লুৎফর রহমান ফারুকী। এ অভিযোগের ভিত্তিতে ফ্লাইট পার্সার ফারুকীকে গ্রাউন্ডেড করা হয়েছে বলেও সূত্র নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, এ বিষয়ে বিমান কর্তৃপক্ষের কাছে মেইল করে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওই নারী যাত্রী। বিমানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শফিউল আজিম বরাবর লিখিত অভিযোগে তিনি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে আর কোনোদিন ভ্রমণ করবেন না বলেও জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১১ জুলাই সিলেট থেকে আরব আমিরাতের শারজাহগামী বিজি-২৫১ ফ্লাইটে এ ঘটনা ঘটে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে করে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আরব আমিরাত যাচ্ছিলেন এক তরুণী। ১১ জুলাই রাত সোয়া ৮টায় ফ্লাইটটি ছেড়ে যায় শারজাহর উদ্দেশে। বিজনেস ক্লাসের একমাত্র যাত্রী ছিলেন তিনি।

ই-মেইলে পাঠানো চিঠিতে ভুক্তভোগী ওই তরুণী অভিযোগ করে লিখেছেন, বিমানের বিজি-২৫১ ফ্লাইটটি উড্ডয়নের পরপরই ফ্লাইট পার্সার লুৎফর রহমান ফারুকি তার সঙ্গে অসংলগ্ন কথাবার্তা শুরু করেন। ২৮ বছরের চাকরির অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ফ্লাইট পার্সার তাকে জানান, তিনি নৃত্যকলায় পারদর্শী। তার সঙ্গে নাচ করার প্রস্তাব দেন। একপর্যায়ে সামনের বিজনেস কেবিনের আলো নিভিয়ে দিয়ে পাশের সিটে এসে বসেন তিনি। পুরোটা সময়ই একের পর এক অসংলগ্ন ও ব্যক্তিগত গোপনীয় প্রশ্ন করে গেছেন ওই ফ্লাইট পার্সার। কথার ফাঁকে-ফাঁকে তাকে বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাবও দেন এই কেবিন ক্রু। শরীর ছোঁয়ার চেষ্টা করেন। যৌনতা বিষয়ে কথা বলেন, যা তার জন্য ছিল অস্বস্তিকর। একপর্যায়ে সিটের ওপরে থাকা আলো নিভিয়ে দিয়ে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন। এক সময় তরুণীকে বিমানের সামনের অন্ধকার গ্যালিতে আসার প্রস্তাব দেন। তিনি আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এবং গ্যালিতে যেতে অস্বীকৃতি জানান। তখন অভিযুক্ত ফ্লাইট পার্সার তাকে জানান, শারজাহতে তিনি এসিটি হোটেলে থাকবেন এবং তাকে সেই হোটেলে আসার প্রস্তাব দেন। ফ্লাইটটি শারজাহ পৌঁছার আগে আগে বিমানের একজন নারী কর্মী বিজনেস ক্লাসে এলে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয় এবং ফ্লাইট পার্সার লুৎফর রহমান ফারুকি আচরণ বদলে ফেলেন।

অভিযুক্ত ক্রু লুৎফর রহমান ফারুকির বিরুদ্ধে আগেও একাধিকবার যাত্রী হয়রানি, ফ্লাইটে দায়িত্ব চলাকালে সিটে বসে ঘুমানো, লন্ডনে সিগারেটসহ ধরা পড়ার পরও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকি সদ্য নিযুক্ত বিমানের কয়েকজন জুনিয়র কেবিন ক্রুকে উত্তরার ১৮ নম্বর সেক্টরে তার নিজ ফ্ল্যাটে অতিথি হয়ে রাত কাটানোর প্রস্তাবও দিয়েছিলেন। এতে নারী ক্রুরা তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদও জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে বিমানের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা নওশাদ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, অভিযোগ তদন্তে বিমানের মহাব্যবস্থাপক (কার্গো) রাশেদুল করিমের নেতৃত্বে গত বৃহস্পতিবার এক সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

বিমানের এই কর্মকর্তা আরও জানান, অভিযুক্ত কেবিন ক্রুকে ইতোমধ্যেই সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অভিযোগটি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই ফ্লাইট পার্সারের বিরুদ্ধে বিমান সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪১ ঘণ্টা, জুলাই ২৫, ২০২৩
এমকে/এসআইএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।