bangla news

১০ বছরে দ্বিগুণ হয়েছে স্টল ও অংশগ্রহণকারী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০২-০৩ ৬:৩১:৪০ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

১০ বছরের ব্যবধানে বইমেলাতে অংশগ্রহণকারী স্টলের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। একই হারে বেড়েছে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও।

ঢাকা : ১০ বছরের ব্যবধানে বইমেলাতে অংশগ্রহণকারী স্টলের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। একই হারে বেড়েছে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও।

বাংলা একাডেমীর সূত্র জানায়, ২০০২ সালে মেলাতে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ছিল ২৪০টি। আর মোট স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল ৩৫৭টি।

এ বছর মেলাতে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৪২৫টি এবং মোট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৬৩০টি স্টল।

কিন্তু সেই হারে বাড়েনি বইয়ের গুণগতমান। প্রতি বছরই বেড়েছে প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা। প্রতি বছরই মেলাতে আসছে অনেক নিম্নমানের বই। খোদ বাংলা একাডেমী কর্তৃপক্ষও সন্তুষ্ঠ নয় বইয়ের সার্বিক মান নিয়ে।

এ ব্যাপারে বাংলা একাডেমীর সমন্বয় ও জনসংযোগ উপ-বিভাগের উপ-পরিচালক মুর্শিদ আনোয়ার বাংলানিউজকে বলেন, ‘মেলা শুরুর পর থেকে প্রতি বছর এর আয়োজনের ব্যাপকতা বেড়েছে। পরিণত হয়েছে লেখক-পাঠক-প্রকাশকদের মিলনমেলাতে। তবে বাংলা একাডেমী তার সীমাবদ্ধতার মধ্যে চেষ্টা করছে আয়োজনের ব্যাপকতা বাড়াতে। তবে এরপরও মানুষের অসন্তোষ বেড়েছে। বিশেষ করে স্থানের বিষয়টি নিয়ে।’

তিনি জানান, বাংলা একাডেমীর বিবেচনাতে অন্য জায়গা থাকলেও এখানে যেহেতু ঐতিহ্যের বিষয় রয়েছে। তাই আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

বইমেলা শুরুর প্রসঙ্গে সূত্র জানায়, ১৯৭২ সালে অনেকটা অনানুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় আজকের বাঙালির প্রাণের মেলা। এরপর ১৯৭৫ সালে বাংলা একাডেমীর একুশের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে কয়েকটি বেসরকারি সংস্থা একাডেমীর গেটের পাশে বই বিক্রি শুরু করে। এভাবে এগিয়ে যায় আজকের বইমেলা। তারপর থেকে প্রতি বছরই কিছু না কিছু করে বেড়েছে এর আয়োজনের ব্যাপকতা। বেড়েছে স্টল এবং অংশগ্রহণ।

সূত্র জানায়, ২০০৩ সালে অংশগ্রহণকারী স্টল ছিল ২৭৬টি। প্রতিষ্ঠান ছিল ৪০০।

জানা গেছে, ২০০৪ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত স্টল এবং অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান দুই বেড়েছে। তবে ২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে অংশগ্রহণ ছিল কম। সে বছর মোট ২৫৫টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। আর স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয় ৩৬২টি। তবে ২০০৯ সাল থেকে এ বছরের আয়োজন পর্যন্ত আবার প্রতি বছরই অংশগ্রহণ বেড়েছে।

সূত্র জানায়, ২০০৯ সালে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয় ৪৬৪টি। প্রতিষ্ঠান ছিল ৩২৬টি। ২০১০ সালে ৩৫৬টি প্রতিষ্ঠানকে ৫০৫টি স্টল বরাদ্দ দেয় বাংলা একাডেমী।

২০১১ সালে স্টল হয় ৩৭৬টি। অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান ছিল ৫৫৬টি।

বাংলাদেশ সময় : ১৭২৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১২।

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2012-02-03 06:31:40