ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

শিল্প-সাহিত্য

অনলাইনে শিল্পকলার ‘পাহাড়ের বর্ণিল সংস্কৃতি’

363 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৫ ঘণ্টা, জুলাই ৯, ২০২০
অনলাইনে শিল্পকলার ‘পাহাড়ের বর্ণিল সংস্কৃতি’

ঢাকা: ‘করোনার বিরুদ্ধে শিল্প’ শিরোনামে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির ফেসবুক পেজে নিয়মিত প্রচারিত হচ্ছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। তারই ধারাবাহিকতায় এবার এই আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ‘পাহাড়ের বর্ণিল সংস্কৃতি’।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুলাই) বিকেল ৫টায় তিন পার্বত্য জেলার শিল্পীদের নিয়ে অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয় ‘পাহাড়ের বর্ণিল সংস্কৃতি’ শীর্ষক অনুষ্ঠান। এতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিল্পীদের উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে উঠে আসে বিভিন্ন আদিবাসী সংস্কৃতি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। তিন পার্বত্য জেলার মতো অন্যান্য অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিল্পীদের নিয়ে পর্যায়ক্রমে অনুষ্ঠান আয়োজন করার কথা জানান।

বিকেলের এই আয়োজনে নেপালি ভাষায় কবিতা আবৃত্তি করেন অতিথি শিল্পী তনুশ্রী মানজি চাকমা। জেকলিন তঞ্চগ্যা বান্দরবান থেকে গান পরিবেশন করেন। খাগড়াছড়ি থেকে রিয়া চাকমা চাকমা পরিবেশন করেন নৃত্য। খাগড়াছড়ি থেকে অনুশ্রী চাকমা পরিবেশনা করেন সঙ্গীত। জনেশ চাকমা ও নম্রতা খিসা রাঙামাটির একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেন।

এছাড়া বান্দরবান থেকে বম গান পরিবেশন করেন বামরামতিয়াম আমলাই, খাগড়াছড়ির উর্মি ত্রিপুরা পরিবেশন করেন নৃত্য, বান্দরবানের উখ্যই মারমা পরিবেশন করেন আদিবাসী সঙ্গীত, রাঙ্গামাটি থেকে জনেশ চাকমা পরিবেশন করেন আদিবাসী নৃত্য এবং তিসা চাকমা পরিবেশন করেন সঙ্গীত। এছাড়াও তিন জেলার অসংখ্য শিল্পীরা এই আয়োজনে অংশ নেন।

অনুষ্ঠানটি সমন্বয় করেন রাঙ্গামটি জেলা কালচারাল অফিসার অনুসিনথিয়া চাকমা এবং সঞ্চালনা করেন বিজ্ঞান্তর তালুকদার।

বাংলাদেশ সময়: ২১০০ ঘণ্টা, জুলাই ০৯, ২০২০
এইচএমএস/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa