ঢাকা, রবিবার, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

শিল্প-সাহিত্য

রবীন্দ্রনাথের ডায়েরি হার্ভার্ড থেকে আনতে উদ্যোগী হচ্ছে ভারত

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারী ৩, ২০১২
রবীন্দ্রনাথের ডায়েরি হার্ভার্ড থেকে আনতে উদ্যোগী হচ্ছে ভারত

ঢাকা: যে ডায়েরিতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ‘গীতাঞ্জলি’ কাব্যগ্রন্থের ইংরেজি অনুবাদ করেছিলেন সেটি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছ থেকে ভারতে নিয়ে আসার জন্য আমেরিকার সঙ্গে দিল্লি কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা করতে আগ্রহী। ডায়েরিটি এখন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের হাউটন লাইব্রেরিতে রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সম্ভবত সেটি নিলামে ইহুদি চিত্রশিল্পী ও শিল্প সমালোচক উইলিয়াম রোদেনস্টাইনের কাছ থেকে কিনে নিয়েছিলেন। এই রোদেনস্টাইন ১৯১২ সালে ভারত সফরে এসে রবীন্দ্রনাথের বেশ কয়েকটি প্রতিকৃতি এঁকেছিলেন।

রবীন্দ্রনাথের সেই ডায়েরিটি প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি সচিব জহর সরকার মঙ্গলবার বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথের সার্ধশতবর্ষ উদযাপন হয়ে যাওয়ার পরে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছ থেকে মূল ডায়েরিটি দেশে নিয়ে আসা বা তার মেধাসত্ত্ব (কপিরাইট) নেওয়ার জন্য চেষ্টা করবে কেন্দ্রীয় সরকার। এ জন্য কূটনৈতিক স্তরে দু’দেশের মধ্যে আলোচনা হতে পারে। ’ তবে তার আগে ওই ডায়েরির একটি প্রতিলিপি প্রকাশ করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। রবীন্দ্রনাথের জন্ম সার্ধশতবর্ষ উদযাপন কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবেই তা করা হবে। এ মাসের শেষে বা ফেব্রুয়ারির গোড়ায় সেই কাজ শেষ হবে বলে আশা করা যায়। সে ক্ষেত্রে এ বছর কলকাতা বইমেলায় সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হতে পারে।

সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার কথায়, ‘ওই বিশেষ সংস্করণ বিক্রির কোনও ব্যবস্থা করা যাবে না। অর্থাৎ, ব্যক্তিগত সংগ্রহের জন্য কেউ সেটি কিনতে পারবেন না। কারণ, মূল ডায়েরি ও তার পাণ্ডুলিপির মেধাসত্ত্ব রয়েছে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে। তবে কেন্দ্র চেষ্টা করবে দেশের বড় পাঠাগারগুলিতে বিশেষ সংস্করণটির একটি করে প্রতিলিপি রাখতে। যাতে সাধারণ মানুষ তা নাগালের মধ্যে পেতে পারেন। ’

জহর সরকার বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সার্ধশতবর্ষ উদযাপন কমিটির চেয়ারম্যান তথা কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ইচ্ছা ছিল, যদি সেই পাণ্ডুলিপিটি সংগ্রহ করে তার একটি বিশেষ সংস্করণ প্রকাশ করা যায়। সেই সূত্রেই খোঁজ শুরু। ব্রিটিশ লাইব্রেরিতে প্রথমে খোঁজ করে পাওয়া যায়নি। পরে জানা যায়, সেটি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের হাউটন লাইব্রেরিতে রয়েছে। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে গত দেড় বছর ধরে যোগযোগ চলে। ওঁরা অনুমতি দেন। তবে এ-ও জানিয়ে দেন, বিশেষ সংস্করণটি বিক্রির জন্য প্রকাশ করা চলবে না। সেই কারণে প্রতিলিপিটি এখন বিক্রির জন্য প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে প্রতিলিপিটি এতটাই নিখুঁতভাবে করার চেষ্টা হয়েছে যে, মনে হবে আসল ডায়েরিটিই পড়ছেন। ’ সূত্র: আনন্দবাজার।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৩, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa