ঢাকা, শনিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

শিল্প-সাহিত্য

দুই দেশের চিত্র শিল্পীদের ছবি প্রদর্শনী বাংলাদেশ গ্যলারীতে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
দুই দেশের চিত্র শিল্পীদের ছবি প্রদর্শনী বাংলাদেশ গ্যলারীতে দুই দেশের চিত্র শিল্পীদের ছবি প্রদর্শন হচ্ছে বাংলাদেশ গ্যলারীতে

কলকাতা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কলকাতায় বাংলাদেশ উপদূতবাস প্রাঙ্গনে ‘সোনার বাংলা আর্ট ক্যাম্প’র আয়োজন করা হয়।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ও ভারতের চিত্রশিল্পীদের নিয়ে আয়োজন করা হয় বিশেষ এই আর্ট ক্যাম্পের।

রোববার (১২ জানুয়ারি) আর্ট ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের সেই অঙ্কিত চিত্রগুলো নিয়ে প্রদর্শনী শুরু হয় উপদূতাবাসের ‘বাংলাদেশ গ্যালারিতে’।

যা চলবে সোমবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) পর্যন্ত। ওই দিনগুলোয় ইচ্ছুক দর্শক চিত্র প্রদর্শনটি চাক্ষুস উপলদ্ধি করতে পারবে স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।  

ওইদিন উদ্বোধনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন, বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক আতিউর রহমান’সহ বিশিষ্টজনেরা।

চিত্র প্রদর্শন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপদূতাবাস প্রধান তৌফিক হাসান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে উপজীব্য করে, বাংলাদেশ উপদূতাবাসে দু’দিনব্যাপি শিল্পীদের চিত্র অঙ্কন সফলভাবে পরিসম্পাপ্তি হয়েছে। সেই অঙ্কিত চিত্রগুলো আমরা প্রদর্শন করছি বাংলাদশ গ্যালারিতে। এবারে এই আর্ট ক্যাম্পে দুইদেশ মিলিয়ে ২৪জন শিল্পী অংশগ্রহন করেন।
 
‘আজ থেকে ৬৪ দিন অর্থাৎ ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশের যে ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে, তারই প্রতিফলন এই অনুষ্ঠান। জন্ম শতবর্ষের পর বছরব্যাপী আমরা পালন করবো মুজিববর্ষ। ’

এবারের আর্ট ক্যাম্পে অংশগ্রহন করেছিলেন চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, জামাল আহমেদ, রোকেয়া সুলতানা, আহমেদ শামসুদ্দোহা, শেখ আফজাল হোসেন, সৈয়দ হাসান মাহমুদ, আতিয়া ইসলাম, কনক চাঁপা চাকমা, আনিসুজ্জামান, শাহজাহান আহমেদ বিকাশ ও দুলাল চন্দ্র গাইন।

এছাড়া ভারতের তরফে বাদল পাল, ঈশা মোহাম্মদ, শ্যামশ্রী বসু, শুভাপ্রসন্ন, ওয়াসিম কাপুর, সোহিনী ধর, মনোজ দত্ত, আদিত্য বসাক, সুব্রত গঙ্গোপাধ্যায়, চন্দ্র ভট্টাচার্য, ছত্রপতি দত্ত ও অতিন বসাক।

শিল্পীদের আঁকা ছবিগুলো বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব সম্পত্তি বলে বিবেচনা করা হয়েছে এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এই চিত্রগুলো প্রদর্শন করা হবে। ফলে কলকাতা উপদুতাবাসের এই সম্পত্তি সংরক্ষিত থাকবে।

এছাড়া এই আর্টক্যাম্প নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বানী পাঠিয়েছেন। শিল্পীদের ছবিগুলো নিয়ে একটি সুভেনি তৈরী করা হবে। এতে বানীগুলো সমেত প্রত্যেক শিল্পীর স্বল্প আকারে বিবরণ থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫০ ঘণ্টা, জানু্য়ারি ১২, ২০২০
ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa