bangla news

ঢাকা লিট ফেস্ট শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৫ ২:৩২:৩০ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা লিট ফেস্টের আয়োজকরা। ছবি: ডি এইচ বাদল

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা লিট ফেস্টের আয়োজকরা। ছবি: ডি এইচ বাদল

ঢাকা: আটবছর আগে যাত্রা শুরু হয়েছিল ‘হে উৎসব’ নামে। পরে এ উৎসবের নাম হয় ঢাকা লিট ফেস্ট। বাংলাকে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরার প্রত্যয়ে এবং দেশের সাহিত্যপ্রেমীদের বিশ্বের খ্যাতনামা সাহিত্যিক-চিন্তাবিদদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে বছর ঘুরে আবারও বসছে লিট ফেস্টের আসর। 

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা লিট ফেস্টের আয়োজকেরা এসব তথ্য জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা লিট ফেস্টের পরিচালক সাদাফ সায্‌, টাইটেল স্পন্সর বাংলা ট্রিবিউনের সম্পাদক জুলফিকার রাসেল, ঢাকা ট্রিবিউনের সম্পাদক জাফর সোবহান, প্লাটিনাম স্পন্সর সিটি ব্যাংকের এমডি মাসরুর আরেফিন প্রমুখ। 

সংবাদ সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে অংশ নেন ঢাকা লিট ফেস্টের পরিচালক কাজী আনিস আহমেদ এবং আহসান আকবর।

সাদাফ বলেন, আগামী ৭-৯ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার-শনিবার) অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ সাহিত্য উৎসবে পাঁচটি মহাদেশের ১৮টি দেশ থেকে শতাধিক বিদেশি এবং দুই শতাধিক বাংলাদেশি সাহিত্যিক, লেখক, গবেষক, সাংবাদিক, রাজনীতিক অংশ নেবেন। দেশি-বিদেশি অতিথিদের সঙ্গে সরাসরি সাহিত্যসহ সমাজের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনার সুযোগ পাবেন দর্শনার্থীরা।

তিনদিনের এ আয়োজনে ভারতীয় রাজনীতিক শশী থারুর, কথা সাহিত্যিক উইলিয়াম ডালরিম্পল প্রমুখ। দুই বাংলার জনপ্রিয় লেখক শংকরও আসছেন এবারের উৎসবে। বৃহস্পতিবার সকালে উৎসবের উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং ম্যানবুকার পুরস্কারের মনোনয়নপ্রাপ্ত সাহিত্যিক মনিকা আলী। 

উৎসবে যোগ দেবেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় কথা সাহিত্যিক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, ইমদাদুল হক মিলন, শাহীন আখতার, আসাদ চৌধুরী, রুবী রহমান, সেলিনা হোসেন প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবার উৎসবে থাকছে বইয়ের সমারোহ ও দেশীয় ঐতিহ্যকে তুলে ধরার উন্মুক্ত মঞ্চ। পাশাপাশি বই প্রকাশ এবং বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হবে। থাকবে লোকশিল্পীদের উপস্থিতি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য শিল্পী চন্দনা, মাইজভাণ্ডারি শিল্পীগোষ্ঠী। 

অংশ নেবেন ভারতীয় সাংবাদিক প্রেয়াগ আকবর, প্রিয়াঙ্কা দুবে, ফিনিশ সাংবাদিক মিন্না লিন্ডগ্রেন, ডিএসসি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক এইচএম নাকভি, ব্রাজিলের কথাসাহিত্যিক ইয়ারা রড্রিগেজসহ আরও অনেকে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সাদাফ বলেন, উৎসবের উদ্দেশ্য বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িকতা, গণতন্ত্র ও সাহিত্য বিশ্বের কাছে তুলে ধরা। ঢাকা লিট ফেস্ট ২০২০ আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গ করা হবে। এবছরও বঙ্গবন্ধুর ওপরে থাকছে বেশ কয়েকটি সেশন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, উৎসবের প্রথমদিন জেমকন সাহিত্য পুরস্কার দেওয়া হবে। দ্বিতীয় দিনে প্রদর্শিত হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর নির্মিত ডকুফিল্ম ‘হাসিনা: অ্যা ডটার্স টেল’। 

প্রদর্শন শেষে চলচ্চিত্র নির্মাতা পিপলু খান বলবেন, তার নির্মাণ অভিজ্ঞতা। এছাড়া ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা কৌশিক মুখার্জির আসছেন তার চলচ্চিত্র নিয়ে আলাপ করতে।

প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে উৎসব। তবে এর জন্য আগে থেকেই নিবন্ধন করতে হবে। আয়োজকেরা বলছেন, অংশগ্রহণকারীর পরিচয় নিশ্চিত করতেই এই নিবন্ধন। ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করার পর একটি ই-টিকিট পাওয়া যাবে; যা অংশগ্রহণকারীর প্রবেশপত্র হিসেবে ব্যবহৃত হবে। 
তবে সবার সুবিধার্থে ই-টিকিটটি প্রিন্ট বা ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসে বহন গ্রহণযোগ্য হবে। 

নিবন্ধন করতে ক্লিক করুন

তবে বিশেষ এ আয়োজনে অংশ নিতে যাওয়া বিশেষ বক্তাদের সর্ম্পকে ওয়েবসাইটে জানা যাবে। যেখানে তুলে ধরা হয়েছে আয়োজনে অংশগ্রহণকারীদের পরিচয় থেকে শুরু করে সংক্ষিপ্ত আদ্যোপান্ত।

আয়োজকেরা জানান, ঢাকা লিট ফেস্ট আয়োজনে সহযোগিতা করছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়। অনুষ্ঠানের সার্বিক আয়োজনে থাকছে যাত্রিক। আর সহ-আয়োজক হিসেবে রয়েছে বাংলা একাডেমি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৫, ২০১৯
ডিএন/আরআইএস/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2019-11-05 14:32:30