ঢাকা, সোমবার, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ২৫ মার্চ ২০১৯
bangla news

রবিঠাকুরের ‘দুই বিঘা জমি’ কবিতা নিয়ে ‘গ্রাস’

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-২১ ৯:৩১:১৫ পিএম
 'গ্রাস' নাটকের বিশেষ মঞ্চায়ন। ছবি: বাংলানিউজ

'গ্রাস' নাটকের বিশেষ মঞ্চায়ন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘দুই বিঘা জমি’ কবিতা অবলম্বনে নাট্যদল অনুরাগ থিয়েটার মঞ্চায়ন করলো ভিন্নধর্মী নাটক ‘গ্রাস’। শ্যামল দত্তের নাট্যরূপে নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন শিশির রহমান।

রোববার (২১ অক্টোবর) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটার হলে এ নাটকটির মঞ্চায়নে তুলে ধরা হলো ‘রাজার হস্ত করে সমস্ত কাঙালের ধন চুরি’ প্রবাদটি এখনও চলমান।

সময়ের সঙ্গে মানুষের চেহারা বদলায়, পোশাকও বদলায়, কিন্তু চরিত্র বদলায়না। এই বিষয়টিই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে নাটকে। আগে রাজা ও জমিদারদের যে প্রত্যাশা ছিল, এখন সে প্রত্যাশা দেশের অনেক সাধারণ মানুষের। অতিলোভী এসব মানুষের খামখেয়ালিপনায় এখনও মানুষ সর্বশান্ত হয়। গরিবের ভিটেমাটি গ্রাস করে অত্যাচারীরা গড়ে তোলে আধুনিক নগর সভ্যতা।

কবিগুরুর কবিতার উপেন তার ঘরবাড়ি ছেড়ে যাওয়ার পর সে তার ভিটেমাটিতে ফিরে এসেছে কি-না সেটা কবিতায় তুলে ধরা না হলেও প্রভাবশালীদের জন্য সর্বশান্ত হয়ে এখনকার উপেনরা মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নাটকটিতে তুলে ধরা হয়েছে সে বিষয়ও। যুগে যুগে দেশে দেশে উপেনদের দল ভারি হচ্ছে, আর ঘর ছেড়ে নিজ গ্রাম ছেড়ে উপেনরা দেশান্তরী হচ্ছে।

নিঃস্ব অসহায় মানুষগুলো পিষে যাচ্ছে, মিশে যাচ্ছে সভ্যতার শেকড়ে। মানব সভ্যতার আতুড় ঘর সবুজ শ্যামল গ্রামগুলোকে ধ্বংস করে তৈরি হচ্ছে দালান। আর আরো উঁচু হচ্ছে পাষানের অট্টালিকা।

ফসলি জমি উজাড় করে চলছে আবাসন বাণিজ্য। আর নিঃস্ব উপেনের দল এখনও ঘুরে বেড়াচ্ছে গ্রামে-গঞ্জে, শহরে। কারণ তাদের সবকিছুই গ্রাস করে নিয়েছে ভালো মানুষের মুখোশে থাকা সমাজের দুর্বৃত্তরা। ‘গ্রাস’ নাটকের গল্পে উঠে এসেছে এ বিষয়গুলোই।

নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মো. শাহাদাত হোসেন শাহিদ, নিজাম নুর, মীর মিজানুর রহমান, জাহিদ হাসান আশিক, নুরুজ্জামনা নোমানী রিপন, নুপুর খান, আঁখি আক্তার সুমি, অ্যাপোলো রহমান অ্যানি, জোসনা হাওলাদার দোলা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০১৮
এইচএমএস/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নাটক
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db