[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

৩৮ বছরের ঐতিহ্য নিয়ে ঢাকা পদাতিকের নাট্যোৎসব

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০৯ ১০:১৩:৩৭ এএম
ট্রায়াল অব সূর্যসেন নাটকের দৃশ্য। ছবি: বাংলানিউজ

ট্রায়াল অব সূর্যসেন নাটকের দৃশ্য। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: একটি দলের সবচেয়ে আনন্দের ক্ষণ হচ্ছে নতুন নাটক মঞ্চে আনা। ঢাকা পদাতিকের জন্য এমনই আনন্দের দিন ছিল আজ। ছুটির দিনের সন্ধ্যায় তারা মঞ্চে আনে তাদের নতুন নাটক বিট্রিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা মাস্টার দা সূর্যসেনের জীবনীতে ‘ট্রায়াল অব সূর্যসেন’।

একইসঙ্গে এদিন যোগ হয়েছিল দলটির ৩৮ বছর পূর্তির উপলক্ষে নাট্যদলটি আয়োজন করেছে আট দিনব্যাপী নাট্যোৎসবের।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এ আয়োজন বসেছে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায়।

শুক্রবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।ট্রায়াল অব সূর্যসেন নাটকের দৃশ্য। ছবি: বাংলানিউজএ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল আখতারুজ্জামান, উৎসব কমিটির আহ্বায়ক ও সংস্কৃতিজন গোলাম কুদ্দুছ ও অভিনেতা নাদের চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ঢাকা পদাতিকের সভাপতি মিজানুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ হোসাইন।

মঙ্গলপ্রদীপ জ্বালিয়ে অায়োজনের উদ্বোধনের পর ড. আখতারুজ্জামান বলেন, নাটকের তিনটি উপাদান থাকে- সময়, স্থান ও মানুষ। এ তিনটি বিষয় নাটক ও ইতিহাসের সঙ্গে জড়িত। আর এ তিনটির অসামান্য সমন্বয় সৃষ্টি করে সুন্দর নাটক তৈরি হয়। নাটক একটি সমাজের প্রতিবিম্ব। ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি সম্পর্কে জানতে হলে নাটকের বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, নাটকে ইতিহাসের প্রতিফলন দেখা যায়। মানুষ যখন সময় করে নাটক দেখে, তখন তার মধ্যে বিশেষ মূল্যবোধের জন্ম হয়। সংস্কৃতি অঙ্গণে আশির দশকের ঢাকা পদাতিকের গুরুত্ব ছিল অসাধারণ।

লিয়াকত আলী লাকী বলেন, ঢাকা পদাতিকের জন্ম ১৯৮০ সালে হলেও, তার প্রস্তুতি অনেক আগে থেকেই। সে সময় টিএসসির একটি অন্যতম দল ছিল ঢাকা পদাতিক। এ দলটির টিম ওয়ার্ক দারুণ।

গোলাম কুদ্দুছ বলেন, শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য আমরা নাটক করি না। নাটক করি সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে। আমরা নাটকের মাধ্যমে এমন একটি দেশ গঠন করতে চাই, যেখানে জাতি-বর্ণ নির্বিশেষ সকলের সমান অধিকার থাকবে।

উদ্বোধনের পরে মঞ্চায়িত হয় ঢাকা পদাতিকের ৩৮তম প্রযোজনা ‘ট্রায়াল অব সূর্য্যসেন’র উদ্বোধনী প্রদর্শনী। নাটকটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন মাসুম আজিজ।

মাস্টার দা সূর্যসেনের ওপর প্রহসনের বিচার ও অন্যায় হত্যাকাণ্ডের বিষয়বস্তুকে উপজীব্য করে নির্মিত হয়েছে এ প্রযোজনাটি।

নাটকে সূর্যসেন, প্রীতিলতা, কল্পনা দত্ত, অম্বিকা চক্রবর্তী, লোকনাথ বল, নির্মল সেনসহ প্রায় ৪০টি ঐতিহাসিক চরিত্র উঠে এসেছে। নাটকটিতে সূর্যসেনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন নাদের চৌধুরী।

আরও অভিনয় করেছেন মাহবুবা হক কুমকুম, আব্দুল্লাহ রানা, হাসনা হেনা শিল্পী, মাহাবুবুর রহমান টনি, সাবিহা জামান, শ্যামল হাসান, কাজী আমিনুর, ফিরোজ হোসাইন, আক্তার হোসেন প্রমুখ।

শনিবার উৎসবের দ্বিতীয় দিনে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে সন্ধ্যা ৭টায় মঞ্চস্থ হবে শিল্পকলা একাডেমি প্রযোজিত নাটক ‘একশ বস্তা চাল’ ও পরীক্ষণ থিয়েটার হলে ভারতের কলকাতার কল্যাণী নাট্যচর্চা কেন্দ্রের ‘ধ্রুবপুত্র’।

উৎসবের বাকি দিনগুলোতে মঞ্চস্থ হবে ঢাকা পদাতিকের ‘হেফাজত’, ‘কথা’৭১’ ও ‘পাইচো চোরের কিচ্ছা’, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুরের নাট্যদল ঋতিক ‘আদি রাজা’, প্রাচ্যনাট ‘কিনু কাহারের থেটার’ ও লোকনাট্যদল (সিদ্ধেশ্বরী) মঞ্চস্থ করবে ‘কঞ্জুস’।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৩ ঘণ্টা, মার্চ ০৯, ২০১৮
এইচএমএস/এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa