ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ আগস্ট ২০২২, ১২ মহররম ১৪৪৪

শিল্প-সাহিত্য

হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন ২ সাহিত্যিক

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০১৬
হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন ২ সাহিত্যিক ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার-২০১৬’ পেয়েছেন কথাশিল্পী হাসান আজিজুল হক ও স্বকৃত নোমান।

ঢাকা: সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার-২০১৬’ পেয়েছেন কথাশিল্পী হাসান আজিজুল হক ও স্বকৃত নোমান।

শনিবার (১২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে দু’জনের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

বিজয়ীদের পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

সনদ ও ক্রেস্টের পাশাপাশি হাসান আজিজুল হককে ৫ লাখ ও স্বকৃত নোমানকে ১ লাখ টাকা সম্মাননা দেওয়া হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, লেখক ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল, হুমায়ূন আহমেদ পত্নী মেহের আফরোজ শাওন ও এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মুহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া।

অন্যদিনের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল্লাহ নাসেরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম। তাদের রচনাকর্ম সম্পর্কে শংসাবাচন পাঠ করেন অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও আবুল হাসনাত।

অর্থমন্ত্রী বলেন, মহানগর জীবনের বিভিন্ন বিষয় আস্তে আস্তে গড়ে ওঠে। শিক্ষাবলয় দ্রুত গড়ে উঠলেও সাংস্কৃতিক বলয় গড়ে ওঠার বড় কৃতিত্ব হচ্ছে হুমায়ূন আহমেদের।

হুমায়ূন আহমেদের অধিকাংশ বই ছোট উল্লেখ করে মুহিত বলেন, এটা ছিলো একটা কৌশল। এর মাধ্যমে বই পড়ার প্রতি পাঠকের আগ্রহ তৈরি হয়। এই কাজটা তিনি সার্থকভাবে করে গেছেন।

অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, হুমায়ূন আহমেদ আমাদের জন্য একইসময়ে আনন্দ ও বেদনার সঞ্চার করে। তিনি দীর্ঘ জীবন লাভ করেননি। কম সময়ে বাংলা সাহিত্যের জন্য যা দিয়ে গেছেন, তা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

এসময়  হুমায়ূন আহমেদের ছোটগল্পের প্রতি মনোযোগ দেওয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, লেখকরা পুরস্কারের জন্য লেখেন না। কিন্তু এ পুরস্কারপ্রাপ্তি লেখকদের অনুপ্রাণিত করে। এই পুরস্কার দেওয়ার মাধ্যমে যোগ্য লোকদের সম্মানিত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

আগামীতে এ পুরস্কার শ্রেষ্ঠ সাহিত্য পুরস্কারে পরিণত হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

পুরস্কার পাওয়ার পর অনুভূতি প্রকাশ করে হাসান আজিজুল হক বলেন, এ পুরস্কারের মাধ্যমে আমি সম্মানিত হয়েছি। হুমায়ূন আহমেদের নামাঙ্কিত এ পুরস্কার চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০১৬
এসকেবি/ওএইচ/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa