bangla news

৭৫ পেরিয়ে কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১২-২৭ ২:৫২:০৩ এএম

কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন দীর্ঘদিন ধরে লিখে চলেছেন গল্প-উপন্যাসসহ বিচিত্র বিষয়ে। জন্মগ্রহণ করেন ১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর ঢাকা জেলার বিক্রমপুরে। তার প্রথম প্রকাশিত গল্প ‘প্রশ্ন’ পূর্ব পাকিস্তানের প্রথম প্রগতিশীল সাপ্তাহিক ‘যুগের দাবী’তে ছাপা হয়। পুস্তকাকারে প্রকাশিত প্রথম উপন্যাস ‘মধুমতি’।

কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন দীর্ঘদিন ধরে লিখে চলেছেন গল্প-উপন্যাসসহ বিচিত্র বিষয়ে। জন্মগ্রহণ করেন ১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর ঢাকা জেলার বিক্রমপুরে। তার প্রথম প্রকাশিত গল্প ‘প্রশ্ন’ পূর্ব পাকিস্তানের প্রথম প্রগতিশীল সাপ্তাহিক ‘যুগের দাবী’তে ছাপা হয়। পুস্তকাকারে প্রকাশিত প্রথম উপন্যাস ‘মধুমতি’।

তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা একশরও বেশি। এর মধ্যে রয়েছে উপন্যাস, গবেষণাধর্মী রচনা, ছোটগল্প, ধর্মীয় কাহিনী, ভ্রমণ কাহিনী, কিশোর উপন্যাস, স্মৃতিকথা ইত্যাদি। রেডিও, টিভিতে প্রচারিত হয়েছে তাঁর বহু নাটক, জীবন্তিকা ও সিরিজ নাটক। তার ছোটগল্প ও উপন্যাসের চলচ্চিত্রায়ণ হয়েছে প্রেসিডেন্ট (১৯৬৬), কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি (২০০৩), মেঘের পরে মেঘ (২০০৪) এবং ধ্রুবতারা (২০০৬)।

রাবেয়া খাতুন এক সময় শিক্ষকতা করেছেন। সাংবাদিকতার সঙ্গেও দীর্ঘদিন যুক্ত ছিলেন। তিনি ইত্তেফাক, সিনেমা পত্রিকা ছাড়াও বিভিন্ন সংবাদপত্রে কাজ করেছেন। তার সম্পাদনায় পঞ্চাশ দশকে বের হতো মহিলা মাসিক পত্রিকা ‘অঙ্গনা’।

সাহিত্যচর্চার জন্য পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন একুশে পদক (১৯৯৩), বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৭৩), নাসিরউদ্দিন স্বর্ণ পদক (১৯৯৫), হুমায়ূন স্মৃতি পুরস্কার (১৯৮৯), কমর মুশতারী সাহিত্য পুরস্কার (১৯৯৪), বাংলাদেশ লেখিকা সংঘ পুরস্কার (১৯৯৪), শের-ই-বাংলা স্বর্ণপদক (১৯৯৬), ঋষিজ সাহিত্য পদক (১৯৯৮), লায়লা সামাদ পুরস্কার (১৯৯৯) ও অনন্যা সাহিত্য পুরস্কার (১৯৯৯)।

ছোটগল্পের জন্য পেয়েছেন নাট্যসভা পুরস্কার (১৯৯৮), সায়েন্স ফিকশন ও কিশোর উপন্যাসের জন্য পেয়েছেন শাপলা দোয়েল পুরস্কার (১৯৯৬), অতীশ দীপঙ্কর পুরস্কার (১৯৯৮) ও ইউরো শিশু সাহিত্য পুরস্কার (২০০৩)।

এছাড়া টিভি নাটকের জন্য টেনাসিনাস পুরস্কার (১৯৯৭), বাচসাস (বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি) পুরস্কার, বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন মিলেনিয়াম অ্যাওয়ার্ড (২০০০), টেলিভিশন রিপোর্টার্স অ্যাওয়ার্ডসহ (২০০০) বহু পুরস্কার ও সম্মাননা অর্জন করেছেন।

বর্তমানে রাবেয়া খাতুন লেখালেখির কাজে নিবেদিত রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময় ১৩৩০, ডিসেম্বর ২৭, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-12-27 02:52:03