bangla news

শিল্পী হাশেম খানের চিত্রমেলা ২০১০

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১২-১৯ ১০:৩১:৫২ এএম

বাংলাদেশের বরেণ্য শিল্পী হাশেম খান। ১৯৬৯ সাল থেকে হাশেম খান এ দেশের সব গণআন্দোলনের সঙ্গে কোনো না কোনোভাবে জড়িত। ছয় দফা আন্দোলনের পোস্টার, লোগো থেকে শুরু করে বাংলাদেশের সংবিধান অলঙ্করণের প্রধান নকশাকারও তিনি।

বাংলাদেশের বরেণ্য শিল্পী হাশেম খান। ১৯৬৯ সাল থেকে হাশেম খান এ দেশের সব গণআন্দোলনের সঙ্গে কোনো না কোনোভাবে জড়িত। ছয় দফা আন্দোলনের পোস্টার, লোগো থেকে শুরু করে বাংলাদেশের সংবিধান অলঙ্করণের প্রধান নকশাকারও তিনি। তবে এসবের বাইরে তিনি সবচেয়ে বেশি পরিচিত শিশু-কিশোরদের বইয়ে তার আঁকা বিচিত্র ছবির জন্য।

শিল্পী হাশেম খান তুলির আঁচড়ের মধ্য দিয়ে বাংলার প্রকৃতি, সংস্কৃতি ও রাজনীতির সঙ্গে নিবিড়ভাবে সম্পর্কিত । তার একক চিত্রকলা প্রদর্শনী চলছে জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী হলে। ‘বিজয়ের ৪০ বছর : হাশেম খানের চিত্রমেলা ২০১০’ শিরোনামের এ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে ১৮ ডিসেম্বর।

প্রদর্শনীতে রয়েছে মোট ৮৩টি চিত্রকর্ম। এখানকার অধিকাংশ ছবিই ২০০৯ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে আঁকা। এর আগে হাশেম খানের আঁকা ছবির শেষ প্রদর্শনী হয় ২০০৫ সালে। কিছুটা ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য প্রদর্শনীতে স্থান দেওয়া হয়েছে ২০০৫ সালের একটি, ২০০৬ ও ২০০৮-এর কিছু ছবি।

প্রদর্শনীর ছবিগুলোতে হাশেম খান বাংলাদেশের বিচিত্র রূপ-রস, ছয় ঋতুর রঙ, মুক্তিযুদ্ধের নয় মাসের নয়টি নদীর রূপ, মানুষের ব্যথা-বেদনা, গাছ, জাল, নৌকাসহ আদিবাসীদের দুঃখকষ্টও তুলে ধরেছেন। তার বেশ কিছু ছবিতেই দেখা গেছে সবুজের প্রাধান্য। তবে এখানে ফিগারেটিভ ছবির তুলনায় অ্যাবস্ট্রাক্টধর্মী ছবির প্রাধান্য বেশি।

ফিগারেটিভ ছবির মধ্যে তিনি এঁকেছেন কাক, বক, মানুষের মুখ প্রভৃতি। প্রদর্শনীতে বক নিয়ে সিরিজ ছবিও আছে।

প্রদর্শনী চলবে প্রতিদিন সকাল ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। শেষ হবে ২ জানুয়ারি।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২১২৫, ডিসেম্বর ১৯, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-12-19 10:31:52