[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৯ কার্তিক ১৪২৫, ২৪ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

ফের অস্বস্তির গরম কলকাতায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-২২ ৬:২৭:৪৪ এএম
গরমে অতিষ্ঠ শিশুরা লাফিয়ে পড়ছে গঙ্গায়। ফাইল ফটো

গরমে অতিষ্ঠ শিশুরা লাফিয়ে পড়ছে গঙ্গায়। ফাইল ফটো

কলকাতা: কালবৈশাখীর প্রভাব কাটতেই ফের অস্বস্তিকর হাঁসফাঁস করা গরম ফিরে কলকাতায়। কড়া রোদের জন্য শনিবার (২১ এপ্রিল) থেকে তাপমাত্রা বেড়েছে। 

তবে রোববার (২২ এপ্রিল) কালবৈশাখীর সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। তাই এই ক’দিন গরমে নাজেহাল-ই হতে হচ্ছে কলকাতাবাসীকে।
 
আবহাওয়া দফতর পূর্বাভাসে বলছে, রোববার কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রির আশপাশে। তবে অনুভূত হবে ৪০ ডিগ্রির মতো। 

এটা এ সময়ের স্বাভাবিক তাপমাত্রা। মঙ্গলবার রাতে ব্যাপক ঝড়বৃষ্টি হওয়ার প্রভাব থেকে যাওয়ায় বুধবার কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে এক ডিগ্রি কম ছিল। 

বৃহস্পতিবার থেকে তাপমাত্রা বাড়তে থাকে। আবার শুক্রবার থেকে বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকার কারণে আপেক্ষিক আর্দ্রতাও বাড়তে থাকে। ফলে গরমে নাজেহাল গোটা শহরবাসী।
 
কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতরের উপ-পরিচালক (ডিডি) জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলানিউজকে জানান, ভারতে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে গরম হাওয়া বইছে। তাই আদ্রতার সঙ্গে তাপমাত্রাও বেড়েছে। 

তবে রোববার রাত বা সোমবার থেকে কালবৈশাখী হওয়ার উপযোগী পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে জানান তিনি। 
 
এপ্রিল মাসের গোড়ার থেকে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণাঞ্চলে একের পর এক কালবৈশাখী ঝড় হানা দিচ্ছে। সব চেয়ে শক্তিশালী কালবৈশাখী হয়েছে গত মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল)। 

ওই সময় কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় বেশ কয়েকজনের প্রাণহানি ছাড়াও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। তবে এবার গরম থেকে স্বস্তি পেতে ছাতকের মতো বৃষ্টির দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন রাজ্যবাসী। 
 
আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী ঝাড়খণ্ড, উড়িশ্যায় তাপপ্রবাহের সতর্ক বার্তা জারি করেছে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। তবে  পশ্চিমবঙ্গের জন্য এখনও কোনো সতর্কবার্তা নেই। 

রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির কম-বেশিতে ওঠা-নামা করছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬২১ ঘণ্টা,  এপ্রিল ২২, ২০১৮
এসএস/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache