ঢাকা, সোমবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ সফর ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

খুলনার ভোটকেন্দ্র আ’লীগের দখলে নেওয়ার অভিযোগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫১০ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৮
খুলনার ভোটকেন্দ্র আ’লীগের দখলে নেওয়ার অভিযোগ কেসিসি নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মঞ্জু/ ছবি- মানজারুল ইসলাম

খুলনা: খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রগুলো দখল করে নিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

মঙ্গলবার (১৫ মে) তিনি অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেকের সমর্থকরা ভোটকেন্দ্র দখল করে নিয়েছেন। কাগজী বাড়ি কয়লাঘাট স্কুল, কলেজিয়াট স্কুল, আবু হানী মাদ্রাসা, সবুরেন্নেছা মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভোটারদের ভোট দিতে দেওয়া হচ্ছে না।

ট্যাংক রোডে বাড়ি থেকে ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। ওয়ার্ড কার্যালয়ের পাশে এতিমখানা মোড়ের নূরানি মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভোটারের হাতে কালি দিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থকরা নিজেরাই সিল মেরে দিচ্ছেন।  

তিনি আরো বলেন, ৩০ নং ওয়ার্ডের রূপসা স্কুল কেন্দ্রে ধানের শীষের এজেন্ট সেলিম কাজীকে মারধর করা হয়েছে। এছাড়া নগরীর বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ধানের শীষের এজেন্টদের ঢুকতে দেওয়া হয়নি। ভাঙচুর করা হয়েছে ৩১ নং ওয়ার্ডের হাজি আব্দুল মালেক ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সামনের নির্বাচনী ক্যাম্প।

অপরদিকে, ২২ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বিকুর ছোট ভাই কাজী বেলায়েত হোসেন নতুন বাজার হাজি আবু হানিফ ক্বেরাতুল কুরআন নূরানী মাদরাসা কেন্দ্রে ধানের শীষের কোন এজেন্ট ঢুকতে দেননি। খুলনা জিলা স্কুল কেন্দ্রের ৮টি বুথেও ক্ষমতাসীন দলের লোকজন ধানের শীষের কোন এজেন্ট ঢুকতে দেননি। তবে এ কেন্দ্রের ৬ নং বুথে ধানের শীষের এজেন্ট সিরাজুল ইসলাম লিটন মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর উপস্থিতিতে সকাল ১০টায় কেন্দ্রে ঢুকতে সক্ষম হন। লিটন অভিযোগ করেন, তিনি সকাল সাড়ে ৭টায় কেন্দ্রে ঢোকার চেষ্টা করলে ক্ষমতাসীন দলের লোকজন তাকে বাধা দেয়। এ কারণে তিনি ঢুকতে পারেননি।

খালিশপুর ১১ নং ওয়ার্ডের জামিয়াহ ত্বৈয়্যেবাহ নূরানী তালিমুল কোরআন মাদরাসা কেন্দ্র থেকে সহোদর সিরাজকে কুপিয়ে এবং আলমকে মারধর করা হয়। তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া এ ওয়ার্ডে জামিয়া ইসলামিয়া আশরাফুল উলুম বয়স্ক মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে স্বতন্ত্র কাউন্সিলর প্রার্থী জামান মোল্লা জেলিনের এজেন্ট আসাদ ও হাবিবকে সকালেই কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়।

এসব বিষয়ে কেসিসি নির্বাচনের রিটার্র্নিং কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী বলেন, কিছু স্থানের ঘটনা আমি শুনেছি। সেখানে যাচ্ছি।

আর অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে।

মঙ্গলবার (১৫ মে) সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এ ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। মোট ২৮৯টি কেন্দ্রে এ ভোটগ্রহণ চলছে।

নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হয়েছে পুরো খুলনা মহানগরী। টহলে রয়েছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। মাঠে আছে ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাচনী পর্যবেক্ষক টিম।

বাংলাদেশ সময়:  ১১০৮ ঘণ্টা,  মে ১৫ , ২০১৮
এমআরএম/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa