ঢাকা, শুক্রবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

রাজশাহীতে আনন্দ-উৎসবে বিজয় উদযাপন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-১২-১৬ ৮:৩০:১৯ এএম
রাজশাহীতে বিজয় দিবস উদযাপিত

রাজশাহীতে বিজয় দিবস উদযাপিত

জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে রাজশাহীতে বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে।

রাজশাহী: জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে রাজশাহীতে বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) দিবসটি পালন উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবার ব্যাপক কর্মসূচি পালন করা হয়। সূর্যোদয়ের পর থেকে বিজয়ের আনন্দে উৎসবের নগরীতে পরিণত হয় রাজশাহী।

বিজয় দিবস উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজশাহী পুলিশ লাইনে সঙ্গে ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়। একই সময়ে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সূর্যোদয়ের পর সব সরকারি, আধা সরকারি ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

সকাল ৯টায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার আবদুল হান্নান আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এ সময় তিনি জেলা সদরের মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, বিএনসিসি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং  বিভিন্ন  শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, শিশু কিশোর সংগঠন, কারারক্ষী, বাংলাদেশ স্কাউট, রোভার স্কাউট ও গালর্স গাইডের বর্ণাঢ্য কুচকাওয়াজের অভিবাদন গ্রহণ করেন। 

এসময় রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) কাজী আশরাফ উদ্দীন ও রাজশাহী পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইয়াসহ পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সকালে কামারুজ্জামান চত্বরে আলোকচিত্র প্রদর্শন করা হয়। প্রবেশ মূল্য ছাড়া সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত জাদুঘর, পার্ক, চিড়িয়াখানা সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত ছিল।

এছাড়া রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেলখানা, সরকারি শিশু সদন, শিশু নিবাস, অন্ধ, মুক ও বধির বিদ্যালয়, সেফ হোম, এস ও এস শিশু পল্লী, শিশু বিকাশ কেন্দ্র এবং বেসরকারি এতিমখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

জাতির সুখ, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনা করে জুমার পর মসজিদগুলোতে মোনাজাত এবং অন্যান্য উপাসনালয়ে সুবিধামতো সময়ে প্রার্থনা করা  হয়। এদিন উপহার সিনেমা হল ও জনবহুল মোড়গুলোতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। 

বিকেলে রিভারভিউ কালেক্টরেট স্কুল মাঠে আলোচনা সভা ও নারীদের ক্রীড়ানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। একই সময়ে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ একাদশ বনাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা একাদশ এবং মেয়র একাদশ বনাম বিভাগীয় কমিশনার একাদশ প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এছাড়া বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে মহানগরীর সব গুরুত্বপূর্ণ ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। রাতে এগুলোতে বর্ণিল আলোকসজ্জা শোভা পাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৬
এসএস/এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2016-12-16 08:30:19